বাড়ি > বায়োস্কোপ > 'কেড়ে নেওয়া হোক করণ জোহরের পদ্মশ্রী', বিস্ফোরক দাবি কঙ্গনার
অ্যান্টি-ন্যাশান্যাল ফিল্ম বানিয়েছেন করণ,কেড়ে নেওয়া হোক পদ্মশ্রী : কঙ্গনা
অ্যান্টি-ন্যাশান্যাল ফিল্ম বানিয়েছেন করণ,কেড়ে নেওয়া হোক পদ্মশ্রী : কঙ্গনা

'কেড়ে নেওয়া হোক করণ জোহরের পদ্মশ্রী', বিস্ফোরক দাবি কঙ্গনার

  • ভারতীয় সেনাবাহিনীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করবার চেষ্টা করেছেন করণ জোহর। কেড়ে নেওয়া হোক পরিচালক,প্রযোজকের পদ্মশ্রী সম্মান, টুইট বার্তায় দাবি কঙ্গনার। 

ফের বিস্ফোরক কঙ্গনা রানাওয়াত । এবার এই বলিউড অভিনেত্রী নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে সরাসরি পরিচালক করণ জোহরের পদ্মশ্রী কেড়ে নেওয়ার অনুরোধ জানালেন কেন্দ্রীয় সরকারকে । পরিচালকের বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগ তিনি একটি আন্তর্জাতিক মঞ্চে প্রকাশ্যে সরাসরি কঙ্গনাকে হুমকি দেন । এছাড়াও সদ্য প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর জন্য এবং তার নিজের প্রভাব খাটিয়ে তাঁর কেরিয়ার শেষ করে দেওয়ার জন্যও তাঁকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন তিনি । এছাড়াও জাতীয়তাবাদ বিরোধী ছবি নির্মাণ করেছেন করণ যা দেশের সেনাবাহিনীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছে, দাবি ‘কুইন’ খ্যাত এই অভিনেত্রীর ।

কঙ্গনা এবং করণের এই বলিউডি দ্বৈরথ দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে । ঘটনার সূত্রপাত মূলত হয়েছিলো যখন কঙ্গনা পরিচালককে তাঁর বহু বিতর্কিত চ্যাট শো কফি উইথ করণের মঞ্চে সরাসরি ' নেপোটিজমের ধ্বজাধারী পরিচালক ' বলে আক্রমণ করেন । অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বিতর্ক আরো উস্কে দিয়ে সরাসরি পরিচালকের স্বজনপোষণ নীতিকেই তাঁর মৃত্যুর জন্য দায়ী করেন অভিনেত্রী । বলিউডের অভিজাত, সুবিধাপ্রাপ্তদের চক্রান্তই সুশান্তের কেরিয়ার শেষ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ জানান তিনি ।

সম্প্রতি করণের ধর্মা প্রোডাকশনের ব্যানারে নেটফ্লিক্স ওটিটি প্লাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল , যে ছবি ঘিরে নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক । এই ছবিতে নাকি বায়োপিকের নামে বেশ কিছু মিথ্যা তথ্য দেখানো হয়েছে বলে দাবি শ্রীবিদ্যা রাজনসহ বহু প্রাক্তন বায়ুসেনা আধিকারিকের। সর্বোপরি এইছবিতে যেভাবে ভারতীয় সেনার পুরুষ অফিসারদের ‘ভিলেন’ হিসাবে তুলে ধরা হয়েছে , বায়ুসেনার অন্দরে লিঙ্গ বৈষ্যমের দিকটি দেখানো হয়েছে তা সেনাবাহিনীর ভাবমূর্তিকে ক্ষুন্ন করেছে দাবি কঙ্গনার ।ভারতীয় বায়ুসেনা, জাতীয় মহিলা কমিশনের তরফেও এই ছবি নিয়ে আগেই আপত্তি জানানো হয়েছে। 

এছাড়াও সুশান্তের কেরিয়ার নষ্টের কারণ হিসেবে সরাসরি করণের সঙ্গে প্রিয় বন্ধু পরিচালক আদিত্য চোপড়ার দিকেও আঙুল তুলেছেন কঙ্গনা । তার দাবি ওঁনারা একসঙ্গে সুশান্তকে ‘ড্রাইভ’ ছবির জন্য সাইন করানোর পরেও ফ্লপ ষ্টার দিয়ে ছবি চলবে না এই অজুহাতে ছবির স্বত্ব নেটফ্লিক্সকে বিক্রি করে দেন | উরি সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের ঠিক পূর্বে পাকিস্তানি শিল্পী ফাওয়াদ খানকে তাঁর পরিচালনায় 'আয় দিল হ্যায় মুশকিল' (২০১৬) ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য করণকে পাকিস্তান পন্থী বলেও আক্রমণ শানিয়েছেন ফ্যাশনের সোনালি গুজরাল । প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সেই সময় পাকিস্তানি প্রতিভাকে বিকাশের সুযোগ দেওয়ার অপরাধে ছবিটি সারা দেশে ব্যান করার দাবি ওঠে । প্রবল প্রতিরোধের মুখে পড়ে করণ জোহর শেষে সরাসরি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট করে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমা চেয়ে নেন। ভবিষ্যতে কোনোদিন কোনো পাকিস্তানি শিল্পীর সাথে কাজ না করার প্রতিজ্ঞা করতেও বাধ্য হন ‘মাই নেম ইজ খান' ছবির পরিচালক ।

কঙ্গনা এবং করণ দুজনেই এই বছর জানুয়ারিতে দেশের চতুর্থ সর্বোচ্চ নাগরিক সন্মান , পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত হন । একটি সাক্ষাৎকারে করণের প্রতিভাকে সন্মান জানিয়ে ওনার এই সাফল্যকে অভিনন্দনও জানিয়েছিলেন অভিনেত্রী । সেই সময় কেজোর (Kjo) কর্মনিষ্ঠা , মেধা এবং পরিশ্রমের প্রতি সম্মান জানাতেও দেখা গিয়েছিলো জয়ললিতার বায়োপিকে অভিনয় করা এই গ্ল্যামার কন্যাকে ।

বন্ধ করুন