তৈমুরের তৈরি পাস্তা নেকলেস পরে ছবি পোস্ট করেছেন করিনা (সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম)
তৈমুরের তৈরি পাস্তা নেকলেস পরে ছবি পোস্ট করেছেন করিনা (সৌজন্যে-ইনস্টাগ্রাম)

মায়ের জন্য নিজের হাতে নেকলেস তৈরি করল তৈমুর, ছবি শেয়ার করলেন করিনা

  • তৈমুরের এই ট্যালেন্ট সম্পর্কে আপনি আগে জানতেন? না জানা থাকলে চাক্ষুস করে নিন। করিনার জন্য পাস্তা দিয়ে গলার হার বানালো তৈমুর।

বয়স সবে মাত্র চার। ইতিমধ্যেই জনপ্রিয়তার বিচারে তিনি টেক্কা দেন বলিউডের অনান্য খানদের। কথা হচ্ছে সইফিনা পুত্র তৈমুরের। জন্মের পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার নয়নের মণি তৈমুর। এবার টিমটিম মায়ের জন্য নিজের হাতে তৈরি করে ফেলেছেন নেকলেস, তাও বারা রঙ বেরঙের পাস্তা দিয়ে। তৈমুরের তৈরি সেই হার গলায় পরে ইনস্টাগ্রামের দেওয়ালে ছবি পোস্ট করেছেন করিনা। লিখেছেন, 'পাস্তা লা ভিস্তা (পাস্তার দর্শন)। তৈমুর আলি খানের হাতে তৈরি জুয়েলারি'। করিনার এই পোস্টে ভালোবাসা উজাড় করে দিয়েছেন তাঁর বন্ধুরা। বেবোর তুতো বোন-ঋদ্ধিমা কাপুর নিজে একজন জুয়েলারি ডিজাইনার। বোনপোর এই ট্যালেন্ট দেখে উচ্ছ্বসিত মাসি। করিশ্মা কাপুর লিখেছেন-'দারুণ হয়েছে'।



ঘরবন্দির সময়টা যে ভালোভাবেই কাজে লাগাচ্ছেন ছোটে নবাব তা স্পষ্ট। এর আগে তৈমুরের হাতে আঁকা একটি ছবিও পোস্ট করেছিলেন করিনা। সঙ্গে সঙ্গেই করিনার 'ইন হাউস পিকাসো'-র সেই ছবি ভাইরাল হয়ে যায়। কোয়ারেন্টাইনের এই মুহূর্তগুলো করিনার জন্য নিঃসন্দেহে স্পেশ্যাল করে তুলছেন তৈমুর।



সম্প্রতি করিনা ইনস্টাগ্রামে সইফ-তৈমুর জুটির একাধিক ছবি শেয়ার করে নিয়েছেন। কখনও বাবার কাছে গাছপালার পরিচর্যা করা শিখছে টিমটিম। কখনও আবার মস্তির মুডে ধরা দিয়েছে সইফ-তৈমুর। তৈমুরকে গাছের পরিচর্যা শেখানোর ব্যাপারে মুম্বই মিররকে সইফ জানান, 'আমার মনে আছে আমার ঠাকুমা আমাকে গোলাপ গাছের কলম তৈরি করা শেখাত। আমি এখন কেমনভাবে গাছের চারা জন্মায়, বড় হয় সেগুলো তৈমুরকে শেখাচ্ছি। বীজ মাটিতে কেমনভাবে পুঁততে হয়, জল ঢালতে হয় এবং তারপর অঙ্কুরোদগমের জন্য অপেক্ষা করতে হয়। দারুণ একটা অনুভূতি। আজ আমরা টমাটো গাছ লাগিয়েছি। খুব দারুণ এবং শান্তিদায়ক। বাবা-মা দুজনেই সঙ্গে থাকায় তৈমুরের দারুণ সময় কাটছে'।


বন্ধ করুন