বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মাধুরী-করিশ্মার ‘রিইউনিয়ন', নেটিজেনের সটান প্রশ্ন, দিল তো পাগল হ্যায় ২ হবে নাকি?
করিশ্মা কাপুর-মাধুরী দীক্ষিত।

মাধুরী-করিশ্মার ‘রিইউনিয়ন', নেটিজেনের সটান প্রশ্ন, দিল তো পাগল হ্যায় ২ হবে নাকি?

  • ১৯৯৭ সালে 'দিল তো পাগল হ্যায়' ছবিতে প্রথমবার একসঙ্গে বড়পর্দায় এসেছিলেন মাধুরী দীক্ষিত এবং করিশ্মা কাপুর।

১৯৯৭ সালে 'দিল তো পাগল হ্যায়' ছবিতে প্রথমবার একসঙ্গে বড়পর্দায় এসেছিলেন মাধুরী দীক্ষিত এবং করিশ্মা কাপুর। ছবিতে দু'জন দু'জনের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দর্শকদের সামনে হাজির হয়েছিলেন। ছবিতে 'পূজা' এবং 'নিশা'-র সেই রসায়ন আজও দর্শকের স্মৃতিতে টাটকা। একাধিক সাক্ষাৎকারেও অভিনেত্রী হিসেবে মাধুরীর র প্রতি তাঁর শ্রদ্ধার কথা জানিয়েছেন করিশ্মা। এছাড়াও সঙ্গে যথেষ্ট হৃদ্যতার সম্পর্ক 'লোলো'-র। এতটাই যে মাধুরীকে তাঁর 'সবসময়ে প্রিয় অভিনেত্রী' বলতেও এতটুকুও দ্বিরুক্তি করেন না করিশ্মা। সম্প্রতি, ফের একবার সে কথার নিদর্শন রাখলেন তিনি।

সম্প্রতি, স্টুডিওপাড়ায় হঠাৎ করেই ফের একবার দেখা হয়ে গেল 'দিল তো পাগল হ্যায়'-এর এই দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর। আর দেখা হতেই উষ্ণ আলিঙ্গনে পরস্পর পরস্পরকে জড়িয়ে ধরলেন তাঁরা। আর দুই বান্ধবীর যখন দেখা হয়, তাঁরা গল্পে মেতে উঠবেন না তাও কি হয়? এঁদের ক্ষেত্রেও এই ব্যাপারে অন্যথা হল না। এরপর চওড়া হাসি মুখে ধরে ক্যামেরার সামনে পোজও দিলেন তাঁরা।

সেই ছবি সামনে আসতেই তা হু হু করে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটপাড়ার বাসিন্দাদের কাছে এ যেন 'পূজা' এবং 'নিশা'-এর রিউনিয়ন। অনেকেই সেকথা কমেন্ট বক্সে ব্যক্তও করেছেন। কেউ কেউ আবার বলেছেন এঁদের দু'জনকে নিয়ে 'দিল তো পাগল হ্যায় ২' হলেও কিন্তু দিব্যি হয়।

প্রসঙ্গত, 'দিল তো পাগল হ্যায়'-এ নিজের দুরন্ত পারফর্মেন্সের জেরে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারটি নিজের ঝুলিতে পুরেছিলেন করিশ্মা কাপুর। ছবি সমালোচকদেরও থেকে কুড়িয়েছিলেন দারুণ প্রশংসা। এই ছবির ব্যাপারে বলতে গিয়ে 'লোলো' একবার জানিয়েছিলেন বলিউডের বহু নায়িকা এই চরিত্রটির প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ার পর তাঁর কাছে সুযোগ আসে। তিনিও ফিরিয়ে দিতে চাইছিলেন কিন্তু শেষপর্যন্ত তাঁর মা ববিতা কাপুরের পরামর্শে রাজি হয়েছিলেন। অন্যদিকে, মাধুরীও জানিয়েছিলেন শাহরুখ-এর সঙ্গে তাঁর জুটি বেঁধে অভিনয় করা সব ছবির মধ্যে এটিই তাঁর সবথেকে প্রিয়।

 

বন্ধ করুন