বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ছোটবেলায় রাগ কমানোর ওষুধ খেত তন্বী ‘তোর্সা’! দিদি নম্বর ১-এ একগুচ্ছ অভিযোগ মায়ের
তন্বীর নামে একগুচ্ছ অভিযোগ করলেন মা সুদেষ্ণা। 

ছোটবেলায় রাগ কমানোর ওষুধ খেত তন্বী ‘তোর্সা’! দিদি নম্বর ১-এ একগুচ্ছ অভিযোগ মায়ের

  • মা শান্তশিষ্ট, আর তন্বী নাকি ‘লেজ বিশিষ্ট’, দিদি নম্বর ১-এ মেয়ের নামে একগুচ্ছ অভিযোগ নিয়ে এল ‘তোর্সা’র মা। 

মা সুদেষ্ণা লাহা রায়কে নিয়ে দিদি নম্বর ১-এ এসেছিলেন ‘মিঠাই’-খ্যাত তোর্সা ওরফে তন্বী লাহা রায়। আর সেখানেই শো-র হোস্ট রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে অভিযোগের ঝুরি খুলে বসেছিলেন সুদেষ্ণা। মেয়ের রাগ নাকি মারাত্মক, বাড়িতে তন্বী কী কী করে শুনলে হাসতে হাসতে পেট ব্যথা হবে আপনার।

তন্বীর মা জানান, ‘মিঠাইতে তো ও নেগেটিভ চরিত্র করছে। কিন্তু ব্যাপারটা হল বাড়িতেও ও মাঝেমাধ্যে ওই নেগেটিভ চরিত্রটা ফুটিয়ে তোলে মাঝেমাঝে।’ আসলে একটুতেই নাকি রাগ হয়ে যায়। বাড়ির সবাইকে রাগ দেখিয়ে দিল। তারপর আবার মাথা ঠান্ডা হলে বুঝতে পারে এটা ঠিক হয়নি। আরও পড়ুন: সে কি! ‘মিঠাই’ থেকে সরে দাঁড়ালেন এই অভিনেত্রী? মন খারাপ দর্শকদের

সুদেষ্ণা জানান, ছোটবেলায় রেগে গেলে মেঝেতে গড়াগড়ি খেত তন্বী। বারান্দায় আটকে রাখতেন তিনি, তাতে চিৎকার করে পাড়ার লোক জোগার করত। তারপর তিনি খুলে দিতে বাধ্য হতেন। এমনকী, মেয়েকে নাকি রাগ কমানোর হোমিওপ্যাথি ওষুধও খাইয়েছিলেন।

‘মিঠাই’তে কাজ প্রসঙ্গে তোর্সা জানান, ‘নেগেটিভ চরিত্রে কাজ করলে নেগেটিভ কমেন্ট তো আসবেই। তবে অনেকেই আমার কাজের প্রশংসা করে। বলে আমি না থাকলে ওদের ভালো লাগে না মিঠাই দেখতে। এটা আমার খুব বড় পাওনা’।

সাথে জেনে রাখুন, বাড়ি থেকে বিয়ের জন্য সম্বন্ধও দেখা হচ্ছে তন্বীর। যদিও বিয়ে করার একদম ইচ্ছে তাঁর নেই! এদিকে মা-বাবা ধরে বসেছে বিয়ে তাঁরা দিয়েই ছাড়বেন।

 

বন্ধ করুন