বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Hazel-Yuvraj: মা হওয়ার পর মুটিয়েছেন, ফ্যাট ঝরাতে জিমে হাজির হেজেল, বউয়ের চিয়ার লিডার যুবরাজ!
বেবি ফ্যাট ঝরাতে চান হেজেল

Hazel-Yuvraj: মা হওয়ার পর মুটিয়েছেন, ফ্যাট ঝরাতে জিমে হাজির হেজেল, বউয়ের চিয়ার লিডার যুবরাজ!

  • মা হওয়ার পর মুটিয়ে গিয়েছেন,সেক্সি শরীর ফিরে পেতে জিমে ঘাম ঝরাচ্ছেন যুবরাজ ঘরণী। ভিডিয়ো শেয়ার করলেন হেজেল, আদুরে মন্তব্য প্রাক্তন ক্রিকেট তারকার। 

‘আ আন্তে আমলাপুরম’-এর সেক্সি আর সিজলিং হেজেল কিচকে মনে আছে? মা হওয়ার পর এখন অনেকটাই পালটে গিয়েছেন যুবরাজ সিং ঘরণী। তাঁর শরীরে জমেছে বেবি ফ্যাট, পেলব তনু এখন অনেকটাই স্ফীত। তবে নিজের পুরোনো শরীর ফিরে মেয়ে মরিয়া হেজেল। এর জন্য জিমে ঘাম ঝরাচ্ছেন এই মডেল-অভিনেত্রী। ইনস্টাগ্রামে সেই আপটেড শেয়ার করে নিয়েছেন হেজেল। আর তা দেখেই নিজেকে আটকে রাখতে পারেননি যুবরাজ। স্ত্রীর চিয়ার লিডার হয়ে এই পোস্ট নিয়ে আদুরে মন্তব্য করেছএন তিনি।

ইনস্টাগ্রামে নিজের ওয়ার্ক আউটের ভিডিয়ো শেয়ার করে অভিনেত্রী লেখেন, ‘বাউন্স ব্যাক পোস্ট-বেবে? নাহ… ফের ঘাম ঝরাও। আমার ‘আ আন্তে (আমলাপুরম) শরীরে ফিরবই'। ভিডিয়োতে একটা কমলা রঙা টি-শার্ট আর কালো রঙের জিম প্যান্টে পাওয়া গেল হেজেলকে। ওয়েট বল এক্সারসাইজ করছিলেন যুবরাজ সিং-এর স্ত্রী। আর এই ভিডিয়োর ব্যাকগ্রাউন্ডে বাজছে হেজেলের সুপারহিট আইটেম গান ‘আ আন্তে আমলাপুরম’ (Aa Ante Amalapuram)। ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া ‘ম্যাক্সিমাম’ ছবির গান এটি। ছবিটা কেউ মনে না রাখলেও এই গানটি আজও মনে রেখেছে সিনেপ্রেমীরা।

হেজেলের এই পোস্টে মন্তব্যের বন্যা। তবে সবচেয়ে আদুরে মন্তব্য এসেছে স্বামীর তরফে। যুবরাজ লেখেন, ‘ইয়ো হেজি গো হেজি’। ২০১৬ সালে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন হেজেল-যুবরাজ। চলতি বছর জানুয়ারিতেই ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ছেলের জন্মের সুখবর শেয়ার করে নেন তারকা দাম্পতি। পুত্র সন্তানের জননী হয়েছেন হেজেল। দুজনে ছেলের নাম রেখেছেন ওরিয়ন কিচ সিং। মা হওয়ার পর চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই ফের জিমে ফিরেছেন হেজেল।

আসলে মা হওয়ার পর প্রকৃতির নিয়মেই অনেকখানি ওজন বাড়ে মেয়েদের। এক সমীক্ষা বলছে, গর্ভাবস্থায় মেয়েদের ওজন সাধারণত ১১.৫ কেজি থেকে ১৬ কেজি পর্যন্ত স্বাভাবিকভাবেই বেড়ে যায়। তবে তন্বী দেহ ফিরে পেতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হেজেল। আরও পড়ুন-সন্তানের নাম ফাঁস করলেন যুবি, জানালেন কীভাবে বদলেছে জীবন

ছেলে হওয়ার পর কতটা বদলেছে জীবন? এই প্রশ্নের জবাবে মাস কয়েক আগে যুবরাজ জানান, 'আমার বাবা-মা আমাকে সবসময় বলতেন, একদিন তুমি বাবা হবে, তখন তোমার জন্য তোমার বাবা-মায়ের ভালোবাসার গুরুত্বটা তুমি বুঝতে পারবে। সুতরাং, এখন আমি আসলে বুঝতে পেরেছি যে তারা কী বোঝাতে চেয়েছিলেন। যখন আপনার একটি সন্তান হয়, এটি এত বিশেষ এবং এমন একটি আশ্চর্যজনক অনুভূতি যা আপনি সত্যিই শব্দে বর্ণনা করতে পারবেন না। আপনি যখন আপনার স্ত্রীর ভিতর থেকে আপনার একটি অংশ বেরিয়ে আসতে দেখেন, তখন এটি খুব অপ্রতিরোধ্য। যখন আমাদের বাচ্চা বের হয়েছিল তখন আমি সত্যিই অভিভূত হয়েছিলাম। এটা আমাদের প্রথমবার, আমি কি বলব বা কি করব বুঝতে পারছিলাম না। আমাদের চোখে জল ছিল।’

 

বন্ধ করুন