প্রিয়াঙ্কা আর পদ্ম লক্ষ্মীকে গুলিয়ে ফেলল নিউ ইয়র্কের এক ম্যাগাজিন!
প্রিয়াঙ্কা আর পদ্ম লক্ষ্মীকে গুলিয়ে ফেলল নিউ ইয়র্কের এক ম্যাগাজিন!

পদ্ম লক্ষ্মী আর প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে গুলিয়ে ফেলল মার্কিন মুলুকের মিডিয়া!

বিদেশি মিডিয়া অনেক সময়ই দেশি গার্লদের পরিচিতি গুলিয়ে ফেলে বা তাদের চিনতে পারে না। দীপিকা পাড়ুকোন-প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার পর এবার এই গন্ডগোলের শিকার হলেন মডেল-টেলিভিশন পার্সোনালিটি পদ্ম লক্ষ্মী।

বিদেশি মিডিয়া অনেক সময়ই দেশি গার্লদের পরিচিতি গুলিয়ে ফেলে বা তাদের চিনতে পারে না। দীপিকা পাড়ুকোন-প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার পর এবার এই গন্ডগোলের শিকার হলেন মডেল-টেলিভিশন পার্সোনালিটি পদ্ম লক্ষ্মী।

নিউ ইয়র্কের একটি ম্যাগাজিন সম্প্রতি পদ্ম লক্ষ্মীর একটি ছবি পোস্ট করে ইন্সটাগ্রামে, কিন্তু ট্যাগ করার সময় পদ্ম লক্ষ্মীর জায়গায় ট্যাগ করে বসে প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে! সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের মতামত জাহির করা থেকে কোনওদিনই পিছিয়ে থাকেন না পদ্ম লক্ষ্মী। নিউ ইয়র্কের সেই ম্যাগাজিনের এই বিবেচনাহীন কাজের যথাযোগ্য জবাব দিয়েছেন ৪৯ বছরের এই মডেল। ম্যাগাজিনের পোস্টের স্ক্রিনশট নিজের ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করে পদ্ম লক্ষ্মী লিখেছেন, 'এই ইলাসট্রেশনটার জন্য ধন্যবাদ। আমি জানি কিছু কিছু মানুষের কাছে আমরা সকলেই এক দেখতে কিন্তু.... #desilife #justindianthings'.


এরপরই তড়িঘড়ি আসল পোস্টটি ডিলিট করে দেওয়া হয় ম্যাগাজিনের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল থেকে। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার তা হয়ে গিয়েছে!

এই পোস্ট ঘিরে বেশ কয়েকজন সেলিব্রিটিও তাঁদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। নাটালিয়ে পোর্টম্যান লিখেছেন, ‘এ যেন ক্রিস্টিয়ানা আগুইলেরার ছবিতে ব্রিটনি স্পিয়ার্সকে ট্যাগ করা’!

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে এর আগে পদ্ম লক্ষ্মী জানিয়েছিলেন, প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে তাঁর খুব ভালো পরিচিতি না থাকলেও, পিগি চপসের সাফল্যে তিনি দারুণ খুশি। তাঁর কথায়, 'আমি বছর খানেক আগে একবার প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ সেরেছিলাম। ও দারুণ মিষ্টি মেয়ে। আমাদের দুজনের স্টাইলিস্টই একজন। আমি ওকে প্রায়ই আমার টিভিতে দেখে থাকি। ওর এই সাফল্যে আমি খুশি। আমি যা করতে পরেছি তার চেয়ে প্রিয়াঙ্কা কয়কে গুন এগিয়ে রয়েছে’।

এর আগেও একবার পশ্চিমী মিডিয়া দীপিকা পাড়ুকোনকে চিনতে পারেনি। ২০১৬ সালের মার্চ মাসে দীপিকা পাড়ুকোন ও টেনিস তারকা নোভাক জোকোভিচকে একটি রেঁস্তোরায় একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল। যেখানে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম দীপিকাকে নোভাকের মহিলা বন্ধ বলে উল্লেখ করেছিল।

বন্ধ করুন