বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ববিতার সঙ্গে 'টাইমপাস' করছিলেন, জানামাত্রই রণধীরের বিয়ে দিয়েছিলেন রাজ কাপুর!
বিয়ের দিন রণধীর এবং ববিতা। পাশে দাঁড়িয়ে রাজ কাপুর, মনসুর আলি খান পতৌদি এবং শর্মিলা ঠাকুর। (ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)
বিয়ের দিন রণধীর এবং ববিতা। পাশে দাঁড়িয়ে রাজ কাপুর, মনসুর আলি খান পতৌদি এবং শর্মিলা ঠাকুর। (ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)

ববিতার সঙ্গে 'টাইমপাস' করছিলেন, জানামাত্রই রণধীরের বিয়ে দিয়েছিলেন রাজ কাপুর!

  • সম্প্রতি, ‘দ্য কপিল শর্মা শো’-তে কপিলের অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন রণধীর কাপুর এবং করিশ্মা কাপুর। সেই প্রোমো শেয়ার করা হয়েছে চ্যানেলের তরফে। সেখানেই রণধীর কাপুরের মুখে উঠে এসেছে মজার মজার সব ঘটনা।

দীর্ঘ কয়েক মাস বন্ধ থাকার পর গত অগস্ট মাস থেকে শুরু হয়েছে ছোটপর্দার অন্যতম জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘দ্য কপিল শর্মা শো’। তবে নতুন সিজন কিছুদিন গড়াতে না গড়াতেই ফের একবার সুপারহিটের তকমা সেঁটেছে এই শো-এর নামের সঙ্গে। সম্প্রতি, এই শো-তে কপিলের অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন রণধীর কাপুর এবং করিশ্মা কাপুর। সেই প্রোমো শেয়ার করা হয়েছে চ্যানেলের তরফে। সেখানেই রণধীর কাপুরের মুখে উঠে এসেছে মজার মজার সব ঘটনা। যা শুনে হেসে গড়াগড়ি খেয়েছেন করিশ্মা এবং কপিল। পাশাপাশি হাসির রোল উঠেছে গোটা সেটে।

কথার ফাঁকে মজার সুরে রণধীর কপিলকে জানান যে ববিতাকে প্রথম দিকে তাঁর বিয়ে করার কোনও ইচ্ছেই ছিল না। স্রেফ 'টাইমপাস' করছিলেন। শেষপর্যন্ত রণধীর-ববিতার মেলামেশা দেখে বাবা রাজ কাপুর কড়াভাবেই জিজ্ঞেস করেছিলেন, 'বিয়ে টিয়ে করার ইচ্ছে নেই?' কোনওমতে বাবাকে রণধীর জানিয়েছিলেন হ্যাঁ ইচ্ছে আছে বটে, তবে এখনই নয়। ফের ধমক খেয়েছিলেন বাবার কাছে, 'তা সেটা কবে? ও বুড়ি হয়ে গেলে তারপরে?' এরপর হাসতে হাসতে বর্ষীয়ান অভিনেতা কপিলকে জানান যে তাঁকে আর কষ্ট করে ববিতাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে হয়নি। তাঁর হয়ে সেই কাজটা বাবা-মা করে দিয়েছিলেন। এরপর তাঁদের পাল্লায় পড়ে বিয়েটাও সেরে ফেলেছিলেন রণধীর!

কপিলের শো-তে রণধীর এবং করিশ্মা কাপুর। (ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)
কপিলের শো-তে রণধীর এবং করিশ্মা কাপুর। (ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)

একথা সেকথার মাঝে বর্ষীয়ান অভিনেতাকে 'কাল আজ ঔর কাল' ছবির সেই বিখ্যাত গান 'আপ ইয়াহা আয়ে কিস লিয়ে'-এর ব্যাপারে প্রশ্ন করেন কপিল। প্রসঙ্গত, সেই ছবিতে রণধীরের নায়িকা হিসেবে ছিলেন তাঁর অফ-স্ক্রিন পত্নী ববিতা কাপুর। যদিও সেই সময় তাঁরা চুটিয়ে প্রেম করছেন। গানের একটি লাইন রয়েছে যার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায় 'বিয়ে করার ইচ্ছে রয়েছে'। 

এই প্রসঙ্গ টেনেই মজা করে কপিল জিজ্ঞেস করেন যে গানের ওই লাইনটি কি সত্যিই সত্যিই আগে থেকে লেখা হয়েছিল না কি রণধীর আর না থাকতে পেরে বলে ফেলেছিলেন ববিতাকে? প্রশ্ন শেষ হতে না হতেই বর্ষীয়ান অভিনেতার সপাটে জবাব, 'আমার দাবি তো আগে থাকতেই ছিল। তবেই না ওই কথাগুলো বলতে রাজি হয়েছিলাম'।

বন্ধ করুন