বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > গান চুরির অভিযোগ রূপঙ্কর বাগচীর বিরুদ্ধে! পুলিশের দ্বারস্থ মহিলা ইউটিউবার
রূপঙ্কর বাগচীর বিরুদ্ধে নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের

গান চুরির অভিযোগ রূপঙ্কর বাগচীর বিরুদ্ধে! পুলিশের দ্বারস্থ মহিলা ইউটিউবার

  • ফের বিতর্কের মুখে রূপঙ্কর বাগচী। গান চুরির মতো বিস্ফোরক অভিযোগ নিয়ে নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের এক মহিলা ইউটিউবারের।

বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না রূপঙ্কর বাগচীর। এবার গায়কের বিরুদ্ধে গান চুরির মতো অভিযোগ। বৃহস্পতিবার সকালে নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের করেন এক মহিলা ইউটিউবার। রূপঙ্কর বাগচী ও কম্পোজার পার্থ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে নিউটাউন থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযোগকারিণী নিজেকে একজন গায়িকা বলে দাবি করেছেন, নাম মনোরমা ঘোষাল। তিনি নিউটাউনের বাসিন্দা।

এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মনোরমা ঘোষাল বলেন, 'রূপঙ্কর বাগচী এবং কম্পোজার পার্থ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে জেনারেল ডায়েরি করতে এসেছি। ছ'মাস আগে আমার চ্যানেলে গানটা আপলোড করেছিলাম। গানটির ভিডিয়োও করেছিলাম। কম্পোজার পার্থ বন্দ্যোপাধ্যায় পারিশ্রমিক নিয়েই আমার গানটি প্রোমোট করেন। আমি ওঁকে এটাও বলেছিলাম যে এটা আমার সম্পূর্ণ নিজের গান। গানটি যাতে সকলের কাছে পৌঁছয় সেজন্য আমি ওঁঁকে প্রমোশন করতে বলেছিলাম। তার জন্য উনি যথাযথ টাকা নিয়েছিলেন।'

আরও পড়ুন: 'পাখি'র আদলে ব্যায়াম! মীরকে ফিট-ফাট দেখে জিমে ঘাম ঝরাতে ছুটলেন স্বস্তিকা

মহিলার আরও অভিযোগ, ‘এক সপ্তাহ আগে থেকে পার্থ বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে মেসেজ করেন। কিছুদিনের জন্য গানটি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সরিয়ে নিতে বলেন উনি। কারণ জিজ্ঞাসা করলে বলেন, রূপঙ্কর বাগচী ওই গানটি গাইছেন। ব্যাপারটা বিবেচনা করার অনুরোধ করেন। আমি জানিয়েছিলাম, গান আমার প্যাশন। কোনওভাবেই আপোস করতে পারব না। এরপর উনি আর উচ্চবাচ্য করেননি।’

মনোরমা ঘোষালের কথায়, 'গতকাল 'সাগর তুমি..' গানটা যখন চালাতে যাই, দেখি আমার গানটা ইউটিউব চ্যানেলে আসছে না। সার্চ অপশনেও আমার গানটা আসছিল না। এ দিকে রূপঙ্করের গানটা বাজছে। বুধবার (২৯ জুন) রূপঙ্কর বাগচীর গানটি রিলিজ করেছে।'

মহিলার অভিযোগ, ২৫ জুন রূপঙ্কর বাগচীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল তাঁদের তরফ থেকে। বিস্তারিত লিখে, গানের ভিডিয়ো লিঙ্কও পাঠিয়েছিলেন, ‘আমার অভিভাবক লিখে দিয়েছিলেন গানটি ইতিমধ্যেই গাওয়া হয়ে গিয়েছে। একজন গেয়েছেন। এটা দ্বিতীয় বার করে হতে পারে না।'

তিনি আরও বলেন, 'এমনকী ফোনেও কথা বলেছেন(রূপঙ্কর) আমার অভিভাবকের সঙ্গে। এই বিষয় উনি জানেন না এমন বলতেও পারবেন না। তাহলে এই ধরণের কাজ উনি করলেন কী ভাবে! তা সত্ত্বেও গানটি চালানো হয়। আমার কাছে সব প্রমাণ রয়েছে।’

মনোরমা ঘোষালের দাবি, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক। তাঁর গানের ইউটিউব চ্যানেলটির নাম ‘মনোরমা মিউজিক’। তার গান অনুমতি না নিয়ে চুরি করা হয়েছে। তাই যে তার গানটি যেন পুনরায় রিলিজ করা হয় ও কপিরাইট ইস্যু তুলে নেওয়া হয়। ঘটনার তদন্তে নিউটাউন থানার পুলিশ।

 

 

বন্ধ করুন