বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > যিশুকে নিজের হাতে মারপিট করতে শিখিয়েছেন সলমন! কবুল খোদ টলি-তারকার
'অন্তিম' ছবির সুবাদে প্রথমবার একসঙ্গে বড়পর্দায় হাজির হবেন যিশু সেনগুপ্ত এবং সলমন খান।
'অন্তিম' ছবির সুবাদে প্রথমবার একসঙ্গে বড়পর্দায় হাজির হবেন যিশু সেনগুপ্ত এবং সলমন খান।

যিশুকে নিজের হাতে মারপিট করতে শিখিয়েছেন সলমন! কবুল খোদ টলি-তারকার

  • ঘুষির পারফেক্ট টাইমিং থেকে ঠিকঠাক মারপিট কীভাবে করতে হয়, যিশু সেনগুপ্তকে নিজের হাতে শিখিয়েছেন সলমন খান। প্রকাশ্যে একথা ফাঁস করলেন যীশু স্বয়ং।

ঘুষির পারফেক্ট টাইমিং থেকে ঠিকঠাক মারপিট কীভাবে করতে হয়, যিশু সেনগুপ্তকে নিজের হাতে শিখিয়েছেন সলমন খান। প্রকাশ্যে একথা ফাঁস করলেন যীশু স্বয়ং। তবে রাস্তায় কিংবা পার্টিতে গোলমাল করার পর হাতাহাতির জন্য নয় কিন্তু। স্রেফ ক্যামেরার সামনে অ্যাকশন সিকোয়েন্স আরও বিশ্বাসযোগ্য করে তোলার জন্য।

তখন 'অন্তিম' ছবির শ্যুটিং চলছে। ছবিতে একটি ছোট অথচ গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন যিশু। ছবির শ্যুটিং চলাকালীন কিছুতেই একটি অ্যাকশন দৃশ্যে শট 'ওকে' হচ্ছিল না এই টলি-নায়কের। সেইসময়ে সেটে হাজির ছিলেন সলমনও। ব্যাপার দেখে যিশুর কাছে উঠে এলেন 'ভাইজান'। এবং নিজের হাতে বেশ কিছু কায়দা শিখিয়ে দেন টলি-নায়ককে। যিশুর ভাষায় 'কুল টিপস'। এবং শুধুই শিখিয়েই থেমে ছিলেন না 'টাইগার। ঠায় দাঁড়িয়ে থেকেছিলেন যতক্ষণ না শট উতরে গেছিল।

এই গোটা প্রসঙ্গে যিশু জানিয়েছেন 'অন্তিম' এর সেটে তাঁর এবং সলমনের দুর্দান্ত আড্ডা জমতো। সিনেমা থেকে শুরু করে নানান বিষয়ে বৈঠকি আড্ডা চলতো। বাঙালি অভিনেতার কথায়, 'সলমন একজন সুইটহার্ট। এত বড় তারকা অথচ কী ভীষণ মাটির মানুষ। ভাবাই যায় না। প্রচুর আড্ডা মেরেছি আমরা। আর অ্যাকশন সিকোয়েন্সে শ্যুটিং করাটা এমনিতেই একটু কঠিন। কারণ গোটা বিষয়টা অর্থাৎ হাত, পা কতটা নড়বে, মুখের ভঙ্গিমা সবকিছুই আগে থেকে কোরিওগ্রাফ করা থাকে। একদম টাইমিং ধরে মেপে মেপে। ঠিক সেই ব্যাপারটাই বোঝাতে আরও সাহায্য করেছিল সলমন'।

তবে হ্যাঁ, 'অন্তিম'য়ে যে সলমনের সঙ্গে তিনি স্ক্রিন শেয়ার করবেন তা নাকি আগে থেকে তাঁকে জানাননি পরিচালক মহেশ মঞ্জরেকর। টলি-তারকার দাবি, মহেশ মঞ্জরেকরের অন্য একটি ছবির ডাবিং শেষ করে ওঠার পর এই ছবির প্রস্তাব তিনি পেয়েছিলেন। কাগজ কলমে চুক্তি পাকা হওয়ার পর পরিচালক জানিয়েছিলেন সলমনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করবেন যিশু।

বন্ধ করুন