বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Srabanti-Abhirup: লুকোছাপা নয়! কেমন পাত্রী চাই? ‘প্রেমিক’ জানাতেই ঝাঁপিয়ে পড়ে মন্তব্য শ্রাবন্তীর

Srabanti-Abhirup: লুকোছাপা নয়! কেমন পাত্রী চাই? ‘প্রেমিক’ জানাতেই ঝাঁপিয়ে পড়ে মন্তব্য শ্রাবন্তীর

প্রেম জমে ক্ষীর!

Srabanti-Abhirup: ‘আমার আদর্শ সঙ্গী একটু পাগলি হবে…', অভিরূপের ‘ড্রিম গার্ল’-এর সঙ্গে কতটা মিল রয়েছে শ্রাবন্তীর? দুয়ে দুয়ে চার করতে বেশি সময় লাগছে না নেটিজেনদের। 

আইনিভাবে এখনও আলাদা হননি রোশন-শ্রাবন্তী, কিন্তু নতুন প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন নায়িকা। মুখে যতই ‘বন্ধু’ রাগ থাক, শ্রাবন্তী-অভিরূপের প্রেম এখন টলিপাড়ার ওপেন সিক্রেট। এখন সব জায়গাতেই শ্রাবন্তীর সঙ্গী অভিরূপ। রোশনের থেকে আলাদা হতে না হতেই প্রতিবেশী অভিরূপের সঙ্গে শ্রাবন্তীর প্রেমের চর্চা শোনা গিয়েছে। দিন যত গড়িয়েছে ততই সেই গুঞ্জন বৃদ্ধি পেয়েছে।

ঘনিষ্ঠমহলের কাছে শ্রাবন্তী-অভিরূপের সমীকরণ অজানা নয়, যদিও প্রকাশ্যে অভিরূপকে শুধুই ‘ভালো বন্ধু’ বলে উল্লেখ করেছেন শ্রাবন্তী। আর অভিরূপ, তিনি নিজেকে শ্রাবন্তীর ‘বিগ ফ্যান’ বলে দাবি করেছেন। বর্তমানে তো পেশাদার সম্পর্কেও জড়িত তাঁরা। অভিরূপের কনফেশনারি কোম্পানির প্রচারের মুখ শ্রাবন্তী।

শনিবার রাতে ইনস্টাগ্রামে অভিরূপ জানালেন তাঁর ড্রিম গার্লের কথা। তাঁর আদর্শ জীবনসঙ্গিনী কেমন হবে? লি রেয়ানের কথা ধার করে অভিরূপ লেখে, ‘আমার আদর্শ সঙ্গী একটু পাগলি হবে,কিন্তু তার সঙ্গে আমি অনেকক্ষণ কথা বলতে পারব। আমার জন্য কেউই খুব বেশি পাগল হয় না, তাই যত পাগল হবে ততই ভালো। আমার একটু পাগল সুন্দরীই পছন্দ।’

অভিরূপের ইনস্টাগ্রাম পোস্ট
অভিরূপের ইনস্টাগ্রাম পোস্ট

আর এই পোস্টে একমাত্র যাঁর মন্তব্য জ্বলজ্বল করছে তিনি শ্রাবন্তী। নায়িকা কমেন্ট বক্সে চোখে হাত রাখা বানরের ইমোজি শেয়ার করেছেন। যার অর্থ হল লজ্জা মেশানো ভয়! অভিরূপের মন্তব্যে যে লাজে রাঙা নায়িকা, তা বেশ স্পষ্ট।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সবসময়ই লাইমলাইটে থাকেন শ্রাবন্তী। অভিনেত্রীর কাজ নিয়ে যতটা না চর্চা হয়, তার থেকে বেশি চর্চা হয় ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। শ্রাবন্তীর পরপর তিনটে বিয়ে ভেঙেছে তবে সেই নিয়ে থোড়াই কেয়ার! জীবনটা নিজের মতো করে বাঁচতে চান শ্রাবন্তী।

আজকাল প্রায়ই একসঙ্গে হ্যাং আউট করেন শ্রাবন্তী-অভিরূপ
আজকাল প্রায়ই একসঙ্গে হ্যাং আউট করেন শ্রাবন্তী-অভিরূপ

জি ২৪-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শ্রাবন্তী জানিয়েছেন অভিরূপ তাঁর বিশেষ বন্ধু। এমনকী, নিজের পাশে এই ‘স্পেশ্যাল ফ্রেন্ড’ সবসময় থাকে বলেও জানান। অভিরূপের তিনটি ভালো দিক সম্পর্কে বলতে গিয়ে শ্রাবন্তী জানান, ‘মানুষ হিসেবে খুব ভালো, খুব পরিবারের দিকে নজর দেয়, যা আমার সবচেয়ে ভালো লাগে আর বন্ধু হিসেবে ভীষণ ভালো। আমি মনের কথা বলতে পারি। আর যেটা আমার খারাপ লাগে তা হল কাজের পর খুব ল্যাদ খায়। জিম করতে বলি তাও করে না।’ আরও পড়ুন- শ্রাবন্তীকে জন্মদিনের আদুরে শুভেচ্ছা চর্চিত প্রেমিক অভিরূপের, কী লিখলেন?

আপতত রোশন-শ্রাবন্তীর ডিভোর্স মামলা আদালতে বিচারাধীন। সেই মামলা মিটলে কি চার নম্বরবার ছাদনা তলায় বসবেন শ্রাবন্তী? সেটাই এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন।

বন্ধ করুন