বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অঙ্কুশ ‘সাপ’ আর ঐন্দ্রিলা ‘হাতি’! অঙ্কুশ হাজরা বনাম স্যান্ডি সাহার নরম-গরম লড়াই
স্যান্ডি সাহা-কে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ব্লক করে দিয়েছেন অঙ্কুশ হাজরা।
স্যান্ডি সাহা-কে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ব্লক করে দিয়েছেন অঙ্কুশ হাজরা।

অঙ্কুশ ‘সাপ’ আর ঐন্দ্রিলা ‘হাতি’! অঙ্কুশ হাজরা বনাম স্যান্ডি সাহার নরম-গরম লড়াই

  • আপনি কার দলে? 

ইউটিউবার বা কনটেন্ট ক্রিয়েটারদের রোস্ট করা নিয়ে এর আগেও নিজের আপত্তি প্রকাশ করেছেন অঙ্কুশ হাজরা। একসময় অঙ্কুশ আর বং গাই ওরফে কিরণ দত্তের মধ্যে তর্কের আঁচে গা সেঁকে নিয়েছিলেন অনেকেই। তবে, এবার অঙ্কুশ নাকি রেগে গিয়েছেন স্যান্ডি সাহা-র ওপরে। অন্তত সেরকমটাই দাবি করেছেন স্যান্ডি। এই ইউটিউবারের দাবি, অঙ্কুশ তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ব্লক করে দিয়েছেন। যার জবাবে অঙ্কুশের সাফ কথা, সামাজিক মাধ্যম তিনি দেখাশোনা করেন না ৷ তার জন্য বিশেষ টিম আছে ৷ তারা করে থাকলে তিনি জানেন না ৷

তবে, অঙ্কুশের এই কথা মানতে নারাজ স্যান্ডি। তিনি জানান, অঙ্কুশ নিজেই তাঁকে ব্লক করে দিয়েছেন। ভাবছেন সমস্যাটা কী নিয়ে? আসলে অঙ্কুশের শেয়ার করা একাধিক পোস্টে বিতর্কিত মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে স্যান্ডি-কে। তিনি অবশ্য এটা বেশিরভাগ অভিনেতার সঙ্গে করে থাকেন। তবে, অঙ্কুশের পাশাপাশি তিনি অভিনেতার প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা-কেও বডি শেম করেন। সি-বিচে অভিনেত্রীর শুয়ে থাকার একটি ফোটোর তলায় হাতির ছবি পোস্ট করেছিলেন। অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলার ছবির তলায় পোস্ট করেছিলেন সাপ আর ইঁদুরের ছবি। আর যখন, লতি বছর ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পেয়েছিল অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা অভিনীত ছবি ‘ম্যাজিক’, তখন স্যান্ডি একটি স্ক্রিন শট দিয়ে প্রমাণ করতে চেয়েছিলেন এই ছবি কলকাতার কোনও সিনেমাহলে জায়গা পায়নি।

অঙ্কুশ ও ঐন্দ্রিলার ছবির পোস্টারে স্যান্ডির কমেন্ট। 
অঙ্কুশ ও ঐন্দ্রিলার ছবির পোস্টারে স্যান্ডির কমেন্ট। 
হাতির ছবি দিয়ে বডি শেম করা হয়েছে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলাকে। 
হাতির ছবি দিয়ে বডি শেম করা হয়েছে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলাকে। 
সাপ ও হাতির ছবি পোস্ট করে বিতর্ক বাড়িয়েছেন স্যান্ডি। 
সাপ ও হাতির ছবি পোস্ট করে বিতর্ক বাড়িয়েছেন স্যান্ডি। 

স্যান্ডির দাবি অঙ্কুশ সত্যের মুখোমুখি হতে পারেন না ৷ কাপুরুষের মতো লুকিয়ে থাকেন৷ সঙ্গে স্যান্ডির আরও জানান, এর আগেও অভিনেতা তাঁকে হুমকি দিয়েছিলেন। ২০১৯ সালে ইন্ডাস্ট্রি থেকে ব্যান করে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছিলেন। স্যান্ডি জানান, তাঁর মোবাইলে কল রেকর্ডিংয়ে সব রেকর্ড করা আছে ৷ তবে, তারপর শুধরে যায় তাঁদের সম্পর্ক। স্যান্ডি-র দাবি, পুরনো কথা প্রকাশ না করতে তাঁকে অনুরোদ করেছিলেন অঙ্কুশ৷ তাই এতদিন সেই কল রেকর্ড সামনে আনেননি। তবে এখন যখন অঙ্কুশ তাঁকে ব্লক করেছে, তখন তিনিও প্রকাশ করে দেবেন সেই কল রেকর্ড।

স্যান্ডির কথায়, তিনি আরও অনেকের ক্ষেত্রেই এই ধরনের মন্তব্য করে থাকেন ৷ কিন্তু অঙ্কুশ তাঁর ট্রোল (যেটাকে আজকাল রসিকতা হিসেবেও ধরা হয়) মজার ছলে নিতে অক্ষম! যদিও অভিনেতার তরফে এখনও হুমকি কলের সপক্ষে কোনও মন্তব্য পেশ করা হয়নি।

বন্ধ করুন