বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Holi 2021: সিদ্ধি ছাড়া দোলের আনন্দ? বানিয়ে ফেলুন সিদ্ধির মালপোয়া ও পকোড়া
ধনেপাতার চাটনি বা সসের সঙ্গে সিদ্ধি বা ভাঙের পকোড়া খেয়ে দেখুন।
ধনেপাতার চাটনি বা সসের সঙ্গে সিদ্ধি বা ভাঙের পকোড়া খেয়ে দেখুন।

Holi 2021: সিদ্ধি ছাড়া দোলের আনন্দ? বানিয়ে ফেলুন সিদ্ধির মালপোয়া ও পকোড়া

  • অনেকেই আবার সিদ্ধি দিয়ে তৈরি পদ চেখে দেখতে চান। তার জন্য একটু পরিশ্রম করতে হবে, কারণ এগুলি দোকানে কিনতে পাওয়া যায় না। এখানে এমন দুটি ভাঙের পদ তৈরির প্রণালী সম্পর্কে জানানো রইল যা দোলের সময় অনেকের বাড়িতেই তৈরি হয়।

ভাঙ বা সিদ্ধি ছাড়া দোল অনেকেই মেনে নিতে পারেন না। আবার হোলি, শিবরাত্রি বা শ্রাবণ মাসের সিদ্ধির ব্যবহার চোখে পড়ে। ভাঙের পকোড়া, লাড্ডু বা কোনও সরবতের সঙ্গে মিশিয়ে সিদ্ধি খাওয়ার চল রয়েছে অনেক জায়গায়। অনেকেই আবার সিদ্ধি দিয়ে তৈরি পদ চেখে দেখতে চান। তার জন্য একটু পরিশ্রম করতে হবে, কারণ এগুলি দোকানে কিনতে পাওয়া যায় না। এখানে এমন দুটি ভাঙের পদ তৈরির প্রণালী সম্পর্কে জানানো রইল যা দোলের সময় অনেকের বাড়িতেই তৈরি হয়। এর মধ্যে একটি হল মালপোয়া। দোল উপলক্ষে অনেক গৃহস্থেই মালপোয়া তৈরি করা হয়। সে ক্ষেত্রে সিদ্ধি মিশিয়ে মালপোয়ায় একটু টুইস্ট দেওয়া যেতে পারে। অপর পদটি হল সিদ্ধির পকোড়া। 

১.সিদ্ধির মালপোয়া

উপকরণ:

  • ২০০ গ্রাম ময়দা
  • ১ টেবিল চামচ ছোট এলাচ
  • ২৫০ গ্রাম চিনি
  • ১০০ গ্রাম সুজি
  • ৫০০ এমএল দুধ
  • ১ চা চামচ সিদ্ধির বীজের গুড়ো
  • ১ টেবিল চামচ মৌরী
  • ১ কাপ ঘি
  • ২৫০ এমএল জল
  • ১/২ চা চামচ বেকিং পাওডার
  • ১ চিমটি জাফরান

প্রণালী:

প্রথমে একটি পাত্রে জল ও চিনি মিশিয়ে মাঝারি আঁচে রেখে দিন। চিনি গলে যাওয়া পর্যন্ত নাড়াচাড়া করুন। এর পর এতে ২-৩ চা চামচ দুধ মিশিয়ে আবার নাড়ুন। এর ওপরে ফ্যানা জমলে সেটিকে বার করে দিন। 

এবার ময়দা, সুজি, সিদ্ধির গুড়ো, বেকিং পাওডার, মৌরী, ছোট এলাচ গুড়ো ও দুধ মিশিয়ে ভালো ভাবে মেখে নিন। লক্ষ্য রাখবেন মিশ্রণটি যাতে খুব বেশি পাতলা বা গাঢ় না-হয়ে যায়।

এবার হাতা ভরতি মিশ্রণ গরম ঘিয়ে ছাড়ুন। সোনালি রঙের ভাজা হয়ে গেলে ১০ মিনিট পর্যন্ত চিনির রসে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রাখুন। পিস্তা কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন সিদ্ধির মালপোয়া।

দোলে মিষ্টি মুখ করুন সিদ্ধির মালপোয়া দিয়ে।
দোলে মিষ্টি মুখ করুন সিদ্ধির মালপোয়া দিয়ে।

ভাঙ বা সিদ্ধি ছাড়া দোল অনেকেই মেনে নিতে পারেন না। আবার হোলি, শিবরাত্রি বা শ্রাবণ মাসের সিদ্ধির ব্যবহার চোখে পড়ে। ভাঙের পকোড়া, লাড্ডু বা কোনও সরবতের সঙ্গে মিশিয়ে সিদ্ধি খাওয়ার চল রয়েছে অনেক জায়গায়। অনেকেই আবার সিদ্ধি দিয়ে তৈরি পদ চেখে দেখতে চান। তার জন্য একটু পরিশ্রম করতে হবে, কারণ এগুলি দোকানে কিনতে পাওয়া যায় না। এখানে এমন দুটি ভাঙের পদ তৈরির প্রণালী সম্পর্কে জানানো রইল যা দোলের সময় অনেকের বাড়িতেই তৈরি হয়। এর মধ্যে একটি হল মালপোয়া। দোল উপলক্ষে অনেক গৃহস্থেই মালপোয়া তৈরি করা হয়। সে ক্ষেত্রে সিদ্ধি মিশিয়ে মালপোয়ায় একটু টুইস্ট দেওয়া যেতে পারে। অপর পদটি হল সিদ্ধির পকোড়া। 

১.সিদ্ধির মালপোয়া

উপকরণ:

  • ২০০ গ্রাম ময়দা
  • ১ টেবিল চামচ ছোট এলাচ
  • ২৫০ গ্রাম চিনি
  • ১০০ গ্রাম সুজি
  • ৫০০ এমএল দুধ
  • ১ চা চামচ সিদ্ধির বীজের গুড়ো
  • ১ টেবিল চামচ মৌরী
  • ১ কাপ ঘি
  • ২৫০ এমএল জল
  • ১/২ চা চামচ বেকিং পাওডার
  • ১ চিমটি জাফরান

প্রণালী:

প্রথমে একটি পাত্রে জল ও চিনি মিশিয়ে মাঝারি আঁচে রেখে দিন। চিনি গলে যাওয়া পর্যন্ত নাড়াচাড়া করুন। এর পর এতে ২-৩ চা চামচ দুধ মিশিয়ে আবার নাড়ুন। এর ওপরে ফ্যানা জমলে সেটিকে বার করে দিন। 

এবার ময়দা, সুজি, সিদ্ধির গুড়ো, বেকিং পাওডার, মৌরী, ছোট এলাচ গুড়ো ও দুধ মিশিয়ে ভালো ভাবে মেখে নিন। লক্ষ্য রাখবেন মিশ্রণটি যাতে খুব বেশি পাতলা বা গাঢ় না-হয়ে যায়।

এবার হাতা ভরতি মিশ্রণ গরম ঘিয়ে ছাড়ুন। সোনালি রঙের ভাজা হয়ে গেলে ১০ মিনিট পর্যন্ত চিনির রসে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রাখুন। পিস্তা কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন সিদ্ধির মালপোয়া।

|#+|

২. সিদ্ধি বা ভাঙের পকোড়া

উপকরণ:

  • ১ কাপ বেসন
  • ১/২ চা চামচ হলুদ গুড়ো
  • ১/২ চা চামচ লাল লঙ্কা গুড়ো
  • ১ চা চামচ আমচুর পাওডার
  • ১ চামচ সিদ্ধি বাটা
  • ২ ছোট চামচ নুন
  • ২টো পেঁয়াজ, পাতলা লম্বা কাটা
  • ২টো আলু, পাতলা করে কাটা
  • ভাজার জন্য তেল

প্রণালী:

বেসনের মধ্যে প্রথমে নুন, হলুদ, লাল লঙ্কাগুড়ো, আমচুর পাওডার ও সিদ্ধি পাতা বাটা দিয়ে মিশিয়ে নিন। এর পর এতে পেঁয়াজ ও আলু মেশান। প্রয়োজন পড়লে সামান্য জল দিয়ে ভালো ভাবে মেখে নিন, ঠিক যে ভাবে পেঁয়াজি মাখা হয়। এবার একটি কড়াইয়ে তেল গরম করুন। গোল গোল পাকিয়ে এগুলিকে সোনালী হওয়া পর্যন্ত ভেজে নিন। ধনেপাতার চাটনি বা সসের সঙ্গে সিদ্ধি বা ভাঙের পকোড়া খেয়ে দেখুন।

বন্ধ করুন