বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > কালীপুজোয় হাতে বাজি ফাটলে বা শরীরের কোনও অংশ পুড়ে গেলে কী করবেন জানুন
বাজি ফাটান সাবধানে! দেখুন হাত বা শরীরের কোনও অংশ পুড়ে গেলে কী করবেন। 
বাজি ফাটান সাবধানে! দেখুন হাত বা শরীরের কোনও অংশ পুড়ে গেলে কী করবেন। 

কালীপুজোয় হাতে বাজি ফাটলে বা শরীরের কোনও অংশ পুড়ে গেলে কী করবেন জানুন

  • আনন্দের উৎসব যাতে আনন্দের সাথেই শেষ হয় তাই নিজের ও বাড়ির বাচ্চাদের খেয়াল রাখুন! মোমবাতি-প্রদীপ-বাজি ফাটানোর সময় সাবধান থাকুন। 

দীপাবলি আলোর উৎসব। তবে সঙ্গে এই বিশেষ দিনটায় আলোর পাশাপাশি বাজিও পোড়ানো হয়। যদিও শব্দবাজি নিষিদ্ধ করে দিয়েছে আদালত, তবে পরিবেশবান্ধব আলোর বাজি পোড়াবেন অনেকেই। তবে সাবধানে! কারণ, অনেক সময়েই বেখেয়ালে বা বাজি খারাপ থাকার কারণে হাতে ফেটে যাওয়া, হাত বা শরীরে অন্যান্য অংশ পুড়ে যাওয়ার মতো নানা সমস্যা দেখা দেয়। তাই ফুলঝুরি, তারাবাতি, রংমশাল, তুবড়ি, রকেট অবশ্যই ফাটান, তবে সাবধানে। সঙ্গে দেখে নিন হঠাৎ কোনও দূর্ঘটনা ঘটলে কী করবেন--

  • হাত বা শরীরের কোনও অংশ পুড়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে জল দিন। তাতে ব্যথা ও জ্বালা ভাব সঙ্গে সঙ্গে কমবে। একইসঙ্গে ফোসকা পড়ার সম্ভাবনাও কমিয়ে দেবে। কোনও রকমের ফার্স্ট এইড প্রয়োগের আগে এই কাজটি করুন।
  • সুতির জামা পরে প্রদীপ-মোমবাতি জ্বালান আর বাজি ফাটান। এতে পোশাকে আগুন লাগার ভয় খানিকটা হলেও কমে। তবে, আগুন নিয়ে যখনই কাজ করবেন, সাবধান হওয়ার কথা অবশ্যই মাথায় রাখবেন। 
  • হলুদ আর জল দিয়ে গুলে মিশ্রণ তৈরি করে পোড়া জায়গায় লাগিয়ে নিন। চট জলদি উপশম পেতে ও ফোসকার হাত থেকে বাঁচতে এটি সাহায্য করে।
  • মধুর ঠান্ডাভাব পোড়া জায়গায় দারুণ কাজ করে। এছাড়া পোড়া জায়গায় যাতে সংক্রমণের না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখে। তবে মধু লাগিয়ে জায়গাটি মালিশ করবেন না। আলতো করে মধু লাগিয়ে দেবেন।
  • অনেকটা জায়গা পুড়ে গেলে অ্যালোভেরা জেলও লাগাতে পারেন। দাঁত মাজার পেস্টও খুব উপকারি। 
  • তবে মনে রাখবেন খুব বেশি পুড়ে গেলে সাথে সাথে চিকিৎসকের কাছে যাওয়াই ভালো। কারণ, সেখানেই ভালো ফাস্ট এড পাওয়া যাবে ও সংক্রমণ ছড়াবে না। বাড়ির বাচ্চাদের সাবধানে রাখুন। 

 

বন্ধ করুন