বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Covid 19: অফিসের টয়লেট থেকেও ছড়াতে পারে করোনার সংক্রমণ, সুস্থ থাকতে কী করবেন?
অফিসের টয়লেট থেকেও ছড়াতে পারে করোনা সংক্রমণ।
অফিসের টয়লেট থেকেও ছড়াতে পারে করোনা সংক্রমণ।

Covid 19: অফিসের টয়লেট থেকেও ছড়াতে পারে করোনার সংক্রমণ, সুস্থ থাকতে কী করবেন?

  • ভয় নয়, সজাগ ও সাবধান থাকুন। সঙ্গে স্বাস্থ্যকর খাওয়া-দাওয়া ও জীবনযাত্রায় নিজেকে ধীরে ধীরে অভ্যস্ত করে নিন। 

করোনার সেকেন্ড ওয়েভ কাটিয়ে আবার ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে দেশ। বেশ কিছু ছাড় দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন রাজ্যেই। খুলছে অফিস, জিম, পার্লার। তবে এক্ষেত্রে পাবলিক টয়লেট ব্যবহারের সময় সাবধান থাকুন। কারণ এই সব জায়গা থেকে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা সব থেকে বেশি থাকে। ছোঁয়াচ বাঁচিয়ে বাস, মেট্রো, ট্যাক্সি বা অটোতে না হয় চড়লেন, কিন্তু টয়লেট ব্যবহারের সময় কী করবেন? আর পাঁচজন সহকর্মীর সঙ্গে বাথরুম শেয়ার তো করতেই হয়। সেখানে সোশাল ডিসট্যান্সিং মানবেন কীভাবে? দেখে নিন এই টিপসগুলো। 

অফিসের বাথরুমে সহকর্মীর সঙ্গে গল্প করা আমাদের সকলেরই একটা অভ্য়াস। আজ থেকে কিন্তু এটাই বদ-অভ্যাস। এক তো বন্ধ জায়গা। তারওপর মাপেও ছোট। তাই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি থাকে। ভুলেও বাথরুমে গিয়ে মুখের মাস্ক খুলবেন না। সম্ভব হলে সঙ্গে করে হ্যান্ড ওয়াশ নিয়ে যান। এবং সেটা দিয়েই হাত পরিষ্কার করুন। কলের মুখ বন্ধ করে বাথরুমের দরজা বন্ধ করে নিজের বসার জায়গায় ফিরে আসার পর হাতে স্যানেটাইজার লাগিয়ে নেবেন। 

টয়লেট সিট স্যানেটাইজার আজকাল বেশিরভাগ দোকানে কিনতে পাওয়া যায়। চাইলে অনলাইনেও অর্ডার পরতে পারেন। কোমোড ব্যবহারের আগে তাতে স্যানেটাইজার স্প্রে করে নিন। এবার ১০-২০ সেকেন্ড পর তা ব্যবহার করুন। এটি UTI-র হাত থেকে বাঁচতেও সাহায্য করবে। 

বাথরুমে ঢোকার দরজার হাতলে সরাসরি হাত না দিয়ে টিস্যু ব্যবহার করতে পারেন। একইভাবে কলের মাথাটাও ওইভাবে খুলে নিন। তারপর টিস্যু ফেলে দেবেন। সবশেষে স্যানেটাইজার দিয়ে নিন হাতে।

বন্ধ করুন