বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Weight Loss: পুজোর আগেই মেদ ঝরাতে চাইছেন? পান করুন এই পানীয়গুলো
ওজন কমাতে চাইলে নিয়মিত খান এই পানীয়গুলো

Weight Loss: পুজোর আগেই মেদ ঝরাতে চাইছেন? পান করুন এই পানীয়গুলো

  • Night Drinks for Weight Loss: ওজন কমাতে চাইছেন পুজোর আগেই? তাহলে নিয়মিত খান এই পানীয়গুলো। এক সপ্তাহে কমবে ওজন। কোন পানীয় খাবেন আর কখন দেখে নিন।

মাস ঘুরতে না ঘুরতেই দেবী দুর্গা সপরিবারে মর্ত্যে এসে যাবেন। তার আগেই মেদ ঝরিয়ে নিজেকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে চাইছেন? ডায়েটিং করবেন কিনা ভাবছেন? কিংবা জিমে ভর্তি হওয়ার পরিকল্পনা করছেন? রোজ ঘুম থেকে উঠেই ডিটক্স ওয়াটার, তারপর সব খাবার মেপে মেপে খাচ্ছেন? বেশ তো সেসব করুন, তার সঙ্গে মেনে চলুন এই টোটকাও। ওজন কমাতে নাইট ড্রিংকসের জুড়ি মেলা ভার। মাত্র এক সপ্তাহেই কমাতে পারবেন ২ কেজি! ঘুমানোর আধ ঘণ্টা আগে এই পানীয় খান আর দেখুন উপকার।

ওজন কমাতে যে নাইট ড্রিংক সাহায্য করে:

দারুচিনি চা: রোজ রাতে ঘুমানোর আগে খান দারুচিনি চা। এতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিবায়োটিক বৈশিষ্ট্য। এই পানীয়টি ডিটক্স হিসেবে কাজ করে। এতে অল্প মধ্য দিতে পারেন।

মেথির জল: মেথি আমাদের পাচনতন্ত্রের জন্য ভীষণ উপকারী। এটা ওজন কমাতেও সাহায্য করে থাকে। মেথি জলে ফুটিয়ে সেই জল পান করুন ঘুমানোর আগে।

শশা এবং পার্সলের জুস: এতে রয়েছে হাই ফাইবার এবং জিরো ফ্যাট। মিক্সিতে শশা এবং পার্সলে ব্লেন্ড করে সেটা ছেঁকে পান করুন।

অ্যালোভেরা জুস: অ্যালোভেরা গাছের পাতা কেটে জেল বের করুন, তারপর মিক্সিতে এই জেল আর জল দিয়ে ব্লেন্ড করে সেটা ছেঁকে খেয়ে নিন। এটাও ওজন কমানোর জন্য দারুন উপকারী।

হলুদ দুধ: সর্দি, জ্বর থেকে ইনফেকশন সব আটকাতে হলুদ দুধ ভীষণ উপকারী। কাঁচা হলুদ বেটে তার রস দুধে মিশিয়ে সেটা ঘুমানোর আগে খান। বা হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে খেতে পারেন। এটা হজম শক্তি বাড়ায়।

জল: বেশি মাত্রায় জল খান। জল কিন্তু ডিটক্স করতে সাহায্য করে আমাদের। এতে যেমন আপনি সুস্থ থাকবেন তেমনই মেদ কমবে।

যেটা এই সময় একদম করবেন না:

অতিরিক্ত চিন্তা করবেন না, বা স্ট্রেস নেবেন না। স্ট্রেসের কারণে ওজন বাড়ে। তাই ফিট থাকতে গেলে মানসিক ভাবে সুস্থ থাকা জরুরি।

চিনি খাওয়া একেবারে বন্ধ করে দিন এই কদিন। চিনি মেদ বাড়ায়। একই সঙ্গে বন্ধ করুন অ্যালকোহল এবং সফট ড্রিংকস খাওয়া।

দোকান বা প্যাকেটজাত খাবার খাওয়া বন্ধ রাখুন কদিন। ভাজাভুজি তালিকা থেকে বাদ দিন। বদলে খান ক্যালসিয়াম, প্রোটিন, ভিটামিন যুক্ত খাবার।

বন্ধ করুন