বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চিন সেনা সরে গিয়েছে গালওয়ান থেকে, ধরা পড়ল উপগ্রহের ছবিতে
স্যাটেলাইট চিত্রে সাফ গালওয়ান থেকে সরে গিয়েছে চিন ( Maxar via AP) 

চিন সেনা সরে গিয়েছে গালওয়ান থেকে, ধরা পড়ল উপগ্রহের ছবিতে

  • বুধবার বিকালের মধ্যে প্যাট্রলিং পয়েন্ট ১৭ থেকে চিন সরে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে

গালওয়ান উপত্যকায় প্যাট্রলিং পয়েন্ট ১৫-এ সম্পূর্ণ সেনা সরানোর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। চিনের সেনা প্রায় দুই কিলোমিটার পিছিয়ে গেছে বলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সূত্রে জানা গিয়েছে। 

পূর্ব লাদাখে হট স্প্রিং ও গোগরায় সেনা সরানোর কাজ সোমবার শুরু হয়েছে। এর আগে শনিবার থেকে ধীরে ধীরে ছাউনি গুটিয়ে নেয় চিন। কোর কম্যান্ডারদের বৈঠকে ঠিক হওয়া বোঝাপড়া অনুযায়ী, দুই পক্ষই ১-১.৫ কিলামিটার করে সেনা সরিয়ে নেবে উত্তেজনা কমানোর জন্য। 

এই মুহূর্তে চার কিলোমিটার বাফার জোন তৈরী করা হয়েছে, যেখানে দুই দেশের কোনও বাহিনী নেই। প্রসঙ্গত, রবিবার অজিত ডোভাল ও চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-এর মধ্যে আলোচনার পর জট কাটে। কথা অনুযায়ী সেনা সরায় চিন। 

 তবে কথা অনুযায়ী কাজ হচ্ছে কিনা, সেটা খতিয়ে দেখছে ভারত। বুধবার বিকালের মধ্যে প্যাট্রলিং পয়েন্ট ১৭ থেকে চিন সরে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। 

বাফার জোনে আপাতত প্যাট্রলিং করা যাবে না। তবে এটা দীর্ঘকালীন যেন না হয়, সেই নিয়ে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তাহলে নিজেদের জমিতেই টহলদারি করতে পারবে না ভারতীয় সেনা। 

স্যাটেলাইট চিত্রে সাফ গালওয়ান থেকে সরে গিয়েছে চিন। প্রাক্তন ডিজিএমও বিনোদ ভাটিয়া বলেছেন যে এটা ইতিবাচক কিন্তু সতর্ক থাকতে হবে। আমেরিকান সংস্থা মাক্সারের দেওয়া ছবিতে খুবই স্পষ্ট যে চিন সরে গিয়েছে। ২৮ জুন ও ৬ জুলাইয়ের ছবি প্রকাশ করেছে তারা। 

সরে যাওয়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ভেরিফিকেশন হবে। তারপরেই পরের ধাপ নেবে দুই সেনা। ড্রোন ও স্যাটেলাইট ছবি দিয়ে আপাতত এই যাচাইয়ের কাজ চলছে। তবে প্যাংগং লেকে এখনও ফিঙ্গার ফোর থেকে সরছে না চিন। এপ্রিলেই ভারত ফিঙ্গার এইট অবধি প্যাট্রল করত। সেখানে এখন যাওয়ার উপায় নেই। একবার উত্তেজনা একটু কমলে প্যাংগংয়ে চিন সরবে, এটাই আশা করছে ভারত। 

অনেক বিশেষজ্ঞ বলছেন যে চিন সালামি স্লাইসিং করে জমি অধিগ্রহণ করে। এর অর্থ হল একটু একটু করে জমি নিয়ে নেয়। তাই দ্রুত যাতে বাফার জোনে প্যাট্রলিং ভারত শুরু করতে পারে, সেটা নিশ্চিত করতে হবে। প্যাংগং লেকের বিষয়টি এখনও ঝুলে আছে। দুই পক্ষই নিজেদের ফরওয়ার্ড জোনে বিপুল সংখ্যক সেনা মোতায়েন করে রেখেছে। তাই উত্তেজনা কিছুটা কমলেও দুই পক্ষই খুব সতর্ক। 

বন্ধ করুন