বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নারকীয় নির্যাতন, তুকতাক করে দলিত পরিবার, এই অভিযোগ তুলে খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক মার
এই ঘটনায় কয়েকজনকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ (প্রতীকী ছবি)
এই ঘটনায় কয়েকজনকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ (প্রতীকী ছবি)

নারকীয় নির্যাতন, তুকতাক করে দলিত পরিবার, এই অভিযোগ তুলে খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক মার

  • প্রথমে তাদের লক্ষ্য করে কাদা ছোঁড়া হয়। পরে শুরু হয় মারধর 

মহারাষ্ট্রের চন্দ্রপুর জেলায় ভয়াবহ ঘটনা। দুটি দলিত পরিবারের সাতজন সদস্যের উপর অমানবিক অত্যাচারের অভিযোগ। ওই পরিবারদের সদস্যরা কালো জাদু, তুকতাক এসব করতেন এই অভিযোগ তুলেই স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা তাদের উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। সোমবারের এই ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছে পরিবারের সদস্যরা। পুলিশ ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় ১৩জনকে গ্রেফতার করেছে। চন্দ্রপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অতুল কুনকার্নি বলেন, ‘শনিবার রাতে স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা ওই দুটি পরিবারের সাতজন সদস্যকে ডেকে পাঠায়। তারা কালো জাদু, তুকতাক করে এসব অভিযোগ তুলেই তাদের উপর স্থানীয় বাসিন্দারা চড়াও হয়। প্রথমে তাদের লক্ষ্য করে কাদা ছোঁড়া হয়। এরপর তাদের মধ্যে তিনজনকে কাঠের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।’

ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ যায়। জখমদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করে। অপর এক পুলিশ আধিকারিক সন্তোষ অম্বিকা জানিয়েছেন, প্রাথমিক তদন্ত চলছে। তবে আশা করা যাচ্ছে এই ঘটনায় আরও গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। এদিকে গোটা ঘটনাকে ঘিরে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। সমাজতত্ত্ববিদরাও এনিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এলাকায় সামাজিক সচেতনতা যথাযথ না থাকার জন্যই এই ধরনের ঘটনা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। ওই পরিবারগুলির সুরক্ষার ব্যাপারে যাবতীয় ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এদিকে পুলিশ ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত চালাচ্ছে। কেন এইভাবে তাদের ডেকে পাঠিয়ে মারধর করা হয়েছিল, স্থানীয় পঞ্চায়েতের ভূমিকা কী ছিল এসব নিয়েও নানা প্রশ্ন উঠছে। 

বন্ধ করুন