বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > রামায়ণ নিয়ে 'উপহাস' অনুষ্ঠানে, ক্ষমা চাইল AIIMS-র পড়ুয়া সংগঠন : ভিডিয়ো
নাটকের একটি দৃশ্যের স্ক্রিনগ্র্যাব। (ছবি সৌজন্য ভিডিয়ো)
নাটকের একটি দৃশ্যের স্ক্রিনগ্র্যাব। (ছবি সৌজন্য ভিডিয়ো)

রামায়ণ নিয়ে 'উপহাস' অনুষ্ঠানে, ক্ষমা চাইল AIIMS-র পড়ুয়া সংগঠন : ভিডিয়ো

  • একটি ভাইরাল ভিডিয়োয় শোনা যায়, আধুনিক লক্ষ্মণের (ওই অনুষ্ঠানের চরিত্র) উদ্দেশে ‘তু চিজ বডি হ্যাঁ মস্ত মস্ত’ গাইছেন আধুনিক সুর্পণখা (ওই অনুষ্ঠানের চরিত্র)।

রামলীলা নিয়ে হয়েছিল অনুষ্ঠান। সেখানে রামায়ণ নিয়ে ‘উপহাস’ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছিল। তার জেরে ক্ষমা চাইল দিল্লি এইমসের পড়ুয়া সংগঠন। রবিবার সংগঠনকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, কারও ভাবাবেগে আঘাত দেওয়া উদ্দেশ্য ছিল না। ভবিষ্যতে যাতে এরকম অনুষ্ঠান না হয়, তা নিশ্চিত করবে সংগঠন।

দিল্লি এইমসের পড়ুয়াদের সংগঠনের ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এইমসের কয়েকজন পড়ুয়ার রামলীলার অনুষ্ঠানের একটি ভিডিয়ো ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। পড়ুয়াদের তরফ থেকে আমরা ওই অনুষ্ঠানের জন্য আমরা ক্ষমা চাইছি। যে অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কারও ভাবাবেগে আঘাত করার উদ্দেশ্য ছিল না। ভবিষ্যতে যাতে এরকম অনুষ্ঠান না হয়, তা নিশ্চিত করব আমরা।’

সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিয়োয় (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) দেখা যায়, আধুনিক লক্ষ্মণের (ওই অনুষ্ঠানের চরিত্র) উদ্দেশে ‘তু চিজ বডি হ্যাঁ মস্ত মস্ত’ গাইছেন আধুনিক সুর্পণখা (ওই অনুষ্ঠানের চরিত্র)। আধুনিক সুর্পণখার নাক কেটে দেওয়ার পর আধুনিক লক্ষ্মণ জানতে চান, ‘তুমি জানো, আমার ভাই কে?’ সেইসব ডায়লগ শুনেই দর্শকদের হাসিতে ফেটে পড়তে দেখা গিয়েছে ভাইরাল ভিডিয়োয়।

তবে সেই ভাইরাল ভিডিয়ো নিয়ে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ার একটি অংশ। তাঁরা দাবি করেন, অনুষ্ঠানে রামায়ণ নিয়ে ‘উপহাস’ করা হয়েছে। যে অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিলেন প্রথম বর্ষের ছাত্র। স্পনসর ছিল একটি শিক্ষা সংক্রান্ত অ্যাপ। যে সংস্থা আগেও একাধিক বিতর্কিত অনুষ্ঠানে স্পনসর করেছে। পুরো বিষয়টি নিয়ে রাজনীতিও শুরু হয়। বিজেপির মুখপাত্র সুরেশ নাখুয়া দাবি করেন, এই প্রথমবার এরকম কোনও ঘটনা হয়নি। ওই আয়োজক ছাত্র আগেও ‘হিন্দু দেব-দেবীদের নিয়ে উপহাস করেছেন।’

বন্ধ করুন