বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > তরুণীর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ার অভিযোগ, যুবকের স্কুটি টেনে নর্দমায় ফেলল অসমের সাহসিনী
শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে যুবকের স্কুটি নর্দমায় ফেলে দিল এক তরুণী (ফেসবুক)
শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে যুবকের স্কুটি নর্দমায় ফেলে দিল এক তরুণী (ফেসবুক)

তরুণীর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ার অভিযোগ, যুবকের স্কুটি টেনে নর্দমায় ফেলল অসমের সাহসিনী

  • এটা না করলে আরও দশজন মহিলার সঙ্গে এই আচরণ করত যুবক,দাবি তরুণীর

প্রকাশ্য রাস্তায় স্কুটি দাঁড় করিয়ে তরুণীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগ। অভিযুক্ত যুবককে স্কুটি থেকে নামিয়ে টেনে হিঁচড়ে স্কুটিটিকে নর্দমায় ফেলে দিলেন তরুণী। ওই তরুণীর দাবি গুয়াহাটির ব্যস্ততম জিএস রোডের কাছে বিকাল সাড়ে ৪টের সময় এই ঘটনা হয়েছে। এরপর সেই সংক্রান্ত ভিডিও ফেসবুকে নিজেই পোস্ট করেন ওই তরুণী। এই ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক শোরগোল বিভিন্ন মহলে। ওই তরুণীর দাবি রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় আচমকাই একটি স্কুটিতে চেপে একজন যুবক পাশে এসে দাঁড়ায়। একটি ঠিকানা জিজ্ঞাসা করে সে। এরপর তরুণী বলেন, আমি জানি না। অন্য কাউকে জিজ্ঞাসা করে নিন।

কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই যুবক তরুণীর বুকের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বলে অভিযোগ। কয়েক সেকেন্ডের জন্য তিনি বুঝতে পারেননি ঠিক কী হচ্ছে। এরপরই পালানোর চেষ্টা করে ওই যুবক। কিন্তু তার আগেই তার স্কুটির পেছনটা ধরে ফেলেন ওই তরুণী। এরপর কিছুক্ষণের ধস্তাধস্তি। তারপরই স্কুটিটিকে নিয়ে পাশের ড্রেনে ফেলে দেন ওই তরুণী। ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, আমি এটা না করলে আরও দশ জনকে ওই যুবক টার্গেট করত। তীব্র ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ তাঁর ফেসবুক পোস্টের ছত্রে ছত্রে। তিনি লিখেছেন অসম পুলিশকে ধন্যবাদ। তাঁরা সঠিক সময়ে ঘটনাস্থলে এসে এফআইআর নেন ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেন। নির্ভয়ার প্রসঙ্গও উল্লেখ করেছেন তিনি। তবে ইতিমধ্যেই ওই তরুণীর সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন অনেকেই।  

 

বন্ধ করুন