বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ঝাড়খন্ডের CMকে তুলোধোনা অমিত শাহের, বিরাট অভিযোগ হেমন্ত সোরেনের বিরুদ্ধে

ঝাড়খন্ডের CMকে তুলোধোনা অমিত শাহের, বিরাট অভিযোগ হেমন্ত সোরেনের বিরুদ্ধে

অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (PTI Photo) (PTI)

এর আগে অপারেশন লোটাসের অভিযোগ তোলা হয়েছিল ঝাড়খন্ডের শাসকদলের তরফে। ঝাড়খন্ডের সরকারকে ফেলে দেওয়ার জন্য নানা চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু তাতে সফল হয়নি বিজেপি শিবির। এমনটাই দাবি করা হয়েছিল শাসক শিবিরের পক্ষ থেকে। এনিয়ে সরকার বাঁচাতে নানা কৌশলও করেছিল কংগ্রেস শিবির।

ঝাড়খণ্ড সফরে গিয়ে সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনকে একহাত নিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তাঁর তীব্র কটাক্ষ, ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতির জন্য লালায়িত হেমন্ত সোরেন। মোদীর পাঠানো উন্নয়নের টাকা, আদিবাসীদের জন্য পাঠানো টাকা লুঠ করার অভিযোগও তুলেছেন তিনি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ উল্লেখ করেন ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী একজন আদিবাসী কিন্তু এখানকার সরকার আদিবাসী বিরোধী। তাঁর জমানায় দুর্নীতি একেবারে চরমে গিয়েছে। ফড়েদের দাপট বেড়েছে। জমি মাফিয়ারা আদিবাসীদের জমি কেড়ে নিতে চাইছে। বিকাশ মহাসঙ্কল্প সম্পর্কিত দলীয় সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি ঝাড়খন্ড সরকারকে এভাবেই কার্যত তুলোধোনা করেন।

এদিকে ঝাড়খন্ডের পরশনাথকে পর্যটকদের জন্য আকর্ষনীয় করে তুলতে উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এনিয়ে এবার প্রতিবাদ আন্দোলন শুরু করেছেন জৈন ধর্মাবলম্বীরা। কেন্দ্রীয় সরকার ইতিমধ্যেই সেই উদ্যোগ স্থগিত করে দিয়েছে। কিন্তু তার মধ্যে দুজন পুরোহিতের মৃত্যু হয়েছে আন্দোলনে নেমে। আর এসবের মধ্যেই ঝাড়খন্ডে এলেন অমিত শাহ।

তিনি বলেন,আমি উন্নয়ন সংক্রান্ত একটা লম্বা তালিকা সঙ্গে করে নিয়ে এসেছি। আমি হেমন্ত ভাইকে বলতে চাই ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতি ছাড়া আর কী আপনি করেছেন! আদিবাসীদের কল্য়াণের দিকটি একেবারেই দেখছেন না আপনি। বর্তমান সময়ে একটা দুর্নীতিগ্রস্ত সরকারকে পরিবর্তন করতে চাইছেন সাধারণ মানুষ।

এদিকে এর আগে ঝাড়খন্ডের শাসকদলের তরফে অপারেশন লোটাসের অভিযোগ তোলা হয়েছিল। ঝাড়খন্ডের সরকারকে ফেলে দেওয়ার জন্য নানা চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু তাতে সফল হয়নি বিজেপি শিবির। এমনটাই দাবি করা হয়েছিল রাজ্যের শাসক শিবিরের পক্ষ থেকে। এনিয়ে সরকার বাঁচাতে নানা কৌশলও করেছিল শাসক শিবির। এবার সেই ঝাড়খন্ডে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনকে তুলোধোনা করলেন অমিত শাহ।

এদিকে বছর দুয়েক ধরেই ঝাড়খন্ডে নানা কারণে ভোট করা যায়নি। সেক্ষেত্রে ভোটের জন্য দিন গুনছেন অনেকেই। রাজনৈতিক দলগুলিও ইতিমধ্যে গা ঘামানো শুরু করে দিয়েছে। শাসক , বিরোধী উভয়ই রাজনৈতিক জমি তৈরি করা শুরু করে দিয়েছে। আর শনিবার কার্যত তাতেই শান দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন, আদিবাসীদের উন্নতির জন্য মোদীজি যে অর্থ পাঠিয়েছেন তা ঝাড়়খন্ড সরকার লুঠ করতে পারে না। এভাবে জমি বেদখল করার ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি আমি। বিজেপি এর প্রতিবাদ করে যাবে। জানিয়েছেন অমিত শাহ।

 

বন্ধ করুন