বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে অ্যাপোলো হাসপাতালে শুরু হবে স্পুটনিক ভি-র টিকাকরণ
স্পুটনিক ভি করোনা টিকা (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স)
স্পুটনিক ভি করোনা টিকা (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স)

জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে অ্যাপোলো হাসপাতালে শুরু হবে স্পুটনিক ভি-র টিকাকরণ

  • ইতিমধ্যেই দেশের ৮০টি জায়গায় অ্যাপোলো হাসপাতালের তরফে ১০ লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে।

জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে অ্যাপোলো হাসপাতালে মিলবে রাশিয়ার করোনা রোধক টিকা স্পুটনিক ভি। এদিন সংস্থার তরফে এই ঘোষণা করা হয়। এই প্রসঙ্গে সংস্থার এক্সিকিউটিভ ভাইস-চেয়ারপার্সন শোবানা কামিনেনি বলেন, 'ভারতে অনুমোদন প্রাপ্ত তৃতীয় টিকা স্পুটনিক। অ্যাপোলো হাসপাতালে এই টিকা দেওয়া শুরু হবে জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে। আমাদের বিশ্বাস, যতদিন না সবাই টিকা পাচ্ছেন, কেউ নিরাপদ নন।'

সংস্থার তরফে এক বিবৃতির মাধ্যমে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যেই দেশের ৮০টি জায়গায় অ্যাপোলো হাসপাতালের তরফে ১০ লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এবং টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা ভারত বায়োটেক এবং সেরাম ইনস্টিটিউটকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছে অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষ।

এই বিষয়ে অ্যাপোলোর তরফে বলা হয়, 'দেশের প্রাইভেট সেক্টরের মধ্যে সবথেকে বড় টিকা দানকারী সংস্থা হিসেবে আমরা কেন্দ্রীয় সরকারকে এই অতিমারী ঠেকাতে সাহায্য করে যাব। আমরা আমাদের টিকাকরণ প্রক্রিয়া আরও দ্রুত গতিতে চালাব। আমরা তিন সপ্তাহে ১ মিলিয়ন মানুষকে টিকা দিয়েছি। জুলাইয়ে আমরা প্রতি সপ্তাহে এ মিলিয়ন করে মানুষকে টিকা দিতে চাই। সেপ্টেম্বরের মধ্যে আমরা ২০ মিলিয়ন মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করছি।'

এর আগে ১৭ মে, অ্যাপোলো এবং ডঃ রেড্ডি'স-এর তরফে যৌথ বিবৃতিতে জানানো হয় যে ভারতে স্পুটনিক ভি টিকাকরণ প্রক্রিয়া পরিচালিত করবে। বিশাখাপট্টনমে ১৮ মে থেকে সফট লঞ্চ করা হয় স্পুটনিক ভি-র টিকাকরণের। তবে ডঃ রেড্ডি'স এখনও বাণিজ্যিক ভাবে ভারতের বাজারে কোভিড টিকা ছাড়েনি। এদিকে ১ মে থেকে ১৮-৪৪ বছর বয়সীদের টিকাকরণ শুরু করেছে অ্যাপোলো হাসপাতাল।

 

বন্ধ করুন