বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মমতার প্রকল্পই অনুপ্রেরণা, পঞ্জাবে মহিলাদের নগদ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি কেজরির
 মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
 মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

মমতার প্রকল্পই অনুপ্রেরণা, পঞ্জাবে মহিলাদের নগদ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি কেজরির

‌বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পথ অনুসরণ করলেন আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

‌বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পথ অনুসরণ করলেন আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সোমবার আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল ঘোষণা করেন, পঞ্জাবে ক্ষমতায় এলে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের আদলে প্রকল্প আনবে আপ। উল্লেখ্য, কয়েক মাস আগেই পশ্চিমবঙ্গে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প চালু করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

আগামী বছর পঞ্জাবে ভোট। পঞ্জাবে প্রচারে গিয়ে নারীদের ক্ষমতায়ন নিয়ে একাধিক মন্তব্য করেন আম আদমি পার্টির প্রধান। এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌যদি পঞ্জাবে আম আদমি পার্টি সরকার গঠন করতে পারে, তাহলে পঞ্জাবে ১৮ বছরের বেশি মহিলাদের মাসে ১ হাজার টাকা করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেওয়া হবে। যদি একটি পরিবারে তিনজন মহিলা সদস্য থাকেন, তাহলে তিনজনের অ্যাকাউন্টে আলাদা আলাদা করে ১ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। যে সব বয়স্ক মহিলারা বার্ধক্য ভাতা পান, তাঁরা বার্ধক্য ভাতার সঙ্গে ১ হাজার টাকাও পাবেন।’‌

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গে সাধারণ মহিলাদের জন্য মাসে ৫০০ টাকা ও তফসিলি জাতি–উপজাতিদের জন্য মাসে ১ হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে তৃণমূল সরকার। বাংলায় এই প্রকল্পটি লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নামে পরিচিত। ইতিমধ্যে বাড়ি বাড়ি মহিলাদের অ্যাকাউন্টে টাকা যেতে শুরু করেছে। এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধাঁচেই এই ধরনের প্রকল্প চালু করতে চাইছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তবে তিনি অবশ্য এখনও এই প্রকল্পের নামকরণ করেননি। তবে তাঁর মতে, এই প্রকল্প চালু হলে এটা বিশ্বে সবচেয়ে বড় মহিলা ক্ষমতায়নের কর্মসূচি হবে।

বন্ধ করুন