আয়ুর্বেদিক পদ্ধতিতে বাড়ানো যায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।
আয়ুর্বেদিক পদ্ধতিতে বাড়ানো যায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

করোনাভাইরাস- প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এই আয়ুর্বেদিক সমাধানগুলি জেনে রাখুন

আয়ুর্বেদিক ওষুধ ও ঘরোয়া টোটকা কাজে লাগিয়ে কী ভাবে প্রতিরোধ ক্ষমতার শক্তিবৃদ্ধি করা যায়, তার নানান উপায় জানিয়ে প্রকাশিত হল সরকারি নির্দেশিকা।

Covid-9 সংক্রমণ রোধ করতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা মজবুত করার পরামর্শ দিল কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রক। আয়ুর্বেদিক ওষুধ ও ঘরোয়া টোটকা কাজে লাগিয়ে কী ভাবে প্রতিরোধ ক্ষমতার শক্তিবৃদ্ধি করা যায়, তার নানান উপায় জানিয়ে প্রকাশিত হল সরকারি নির্দেশিকা।

আয়ুষ মন্ত্রক প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সুস্থ ও সবল জীবন যাপনের জন্য আয়ুর্বেদের বিকল্প নেই। দিনচর্চা ও ঋতুচর্চার উপর ভিত্তি করে আয়ুর্বেদে রোগ নিরাময় সূত্রগুলি উল্লেখ করা হয়েছে।

বিশেষ করে শ্বাসকষ্টজনিত উপসর্গের থেকে রেহাই পেতে আয়ুর্বেদে বর্ণিত জীবনচর্চার কিছু প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ বিবৃতিতে উল্লেখ করেছে কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রক।

সাধারণ নিয়মাবলী:

১) সারাদিন গরম জল পান করুন।

২) রতিদিন নিয়ম করে ৩০ মিনিট যোগাভ্যাস, প্রাণায়াম ও ধ্যান অভ্যাস করুন। (#YOGAatHome #StayHome #StaySafe)

৩) রান্নায় প্রতিদিন ব্যবহার করুন হলুদ, জিরে, ধনে ও রসুনের মতো মশলা।


শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আয়ুর্বেদের ব্যবহার:

১) প্রতিদিন সকালে এক চা-চামচ চ্যবনপ্রাশ খান। যাঁদের রক্তে সুগারের প্রাবল্য, তাঁর সুগার-ফ্রি চ্যবলপ্রাশ খাবেন।

২) হার্বাল টি অথছবা ভেষজ ক্কাথ পান করুন। এই মিশ্রণ তৈরি করতে একসঙ্গে বেটে মিশিয়ে নিতে হবে তুলসীপাতা, দারচিনি, গোল মরিচ, সুঁট (শুকনো আদা) ও মোনাক্কা। লেবুর রস ও আখিগুড় মিশ্রণে মিশিয়ে গরম জলে গুলে নিন।

৩) প্রতিদিন ১-২ বার পান করুন ‘গোল্ডেন মিল্ক’। ১৫০ মিলি গরম দুধে আধ চা-চামচ গুঁড়ো হলুদ মিশিয়ে এই পানীয় তৈরি করুন।


আয়ুর্বেদের সাধারণ কিছু টোটকা:

১) প্রতিজিন সকাল ও সন্ধ্যায় নাকের দুই ছিদ্রে কয়েক ফোঁটা তিল বা নারকেল তেল অথবা ঘি ঢেলে জোরে শ্বাস-প্রশ্বাস নিন।

২) এক টেবিলচামচ তিল বা নারকেল তেল মুখে নিয়ে ২-৩ মিনিট কুলকুচি করে ফেলে দিন। এরপর গরম জলে মুখ ধুয়ে পেলুন। এই অভ্যাস দিনে অন্তত ২ বার করতে হবে।


শুকনো কাশি হলে:

১) দিনে একবার গরম জলে পুদিনাপাতা বা জোয়ান ফেলে নিশ্বাসের সঙ্গে নাক দিয়ে বাষ্প টেনে নিন।

২) খুশখুশে কাশি ও গলা জ্বালা হলে লবঙ্গ গুঁড়োর সঙ্গে মধু মিশিয়ে দিনে ২-৩ বার খান।

৩) এই সমস্ত টোটকা প্রয়োগের পরেও সমস্যার সমাধান না হলে চিকিৎকের পরামর্শ নিন।

আয়ুষ মন্ত্রক প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই সমস্ত চিকিৎসা পদ্ধতি নিজের প্রাত্যহিক যাপনের মধ্যে নিয়মিত অভ্যাস করা দরকার।

১৬ জন বৈদ্যের নাম-সহ বিবৃতির শেষে রয়েছে এক ফুটনোট। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘উল্লিখিত প্রক্রিয়ায় Covid-19 সারবে, এমন দাবি করা হচ্ছে না।’


বন্ধ করুন