বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পঞ্জাবের গ্রামে বাড়ছে চার্চ ও মসজিদ, শিখদের অস্ত্র প্রশিক্ষণের আর্জি নেতার
অকাল তখতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান জিয়ানি হরপ্রীত সিং। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

পঞ্জাবের গ্রামে বাড়ছে চার্চ ও মসজিদ, শিখদের অস্ত্র প্রশিক্ষণের আর্জি নেতার

  • শিখদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বলেন, ‘বর্তমানে আমরা একাধিক সমস্যার মুখে পড়ছি। আমাদের ধর্মীয়ভাবে দুর্বল করতে তুলতে পঞ্জাবে ব্যাপকভাবে খ্রিস্টান ধর্ম ছড়িয়ে পড়ছে। পঞ্জাবের গ্রামে প্রচুর চার্চ ও মসজিদ গড়ে উঠছে। যা আমাদের জন্য উদ্বেগজনক।’

সুরজিৎ সিং

পঞ্জাবের গ্রামে প্রচুর মসজিদ ও চার্চ গড়ে উঠছে। তার জেরে ‘চ্যালেঞ্জের’ মুখে পড়েছেন শিখ সম্প্রদায়ের মানুষরা। এমনই মন্তব্য করলেন অকাল তখতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান জিয়ানি হরপ্রীত সিং। সেইসঙ্গে যুব সম্প্রদায়কে আধুনিক অস্ত্রশস্ত্রের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন শিখ প্রতিষ্ঠানের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন।

গত সোমবার অমৃতসরের স্বর্ণ মন্দিরের ‘অপারেশন ব্লু-স্টার’-র ৩৮ তম বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠানে অকাল তখতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান দাবি করেন, পঞ্জাবের গ্রামীণ এলাকায় প্রচুর সংখ্যক চার্চ এবং মসজিদ গড়ে উঠছে। শিখদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বলেন, ‘বর্তমানে আমরা একাধিক সমস্যার মুখে পড়ছি। আমাদের ধর্মীয়ভাবে দুর্বল করতে তুলতে পঞ্জাবে ব্যাপকভাবে খ্রিস্টান ধর্ম ছড়িয়ে পড়ছে। পঞ্জাবের গ্রামে প্রচুর চার্চ ও মসজিদ গড়ে উঠছে। যা আমাদের জন্য উদ্বেগজনক।’

আরও পড়ুন: Sidhu Moose Wala Murder: সিধুর শরীরে মিলেছে ২৫টি গুলির ক্ষত, উত্তরাখণ্ড থেকে গ্রেফতার ১, আটক আরও ৫

সেই পরিস্থিতিতে যুব সম্প্রদায়কে আধুনিক অস্ত্রশস্ত্রের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন শিখ প্রতিষ্ঠানের কাছে আহ্বান জানান অকাল তখতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান। তিনি বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে বৃহদাকারে কর্মসূচি নেওয়ার জন্য এবং এই ধর্মান্তকরণের প্রবণতা রুখতে শিখ ধর্মগুরুদের আর্জি জানাচ্ছি। গ্রামে আবারও শিখদের শক্তিশালী করে তোলা হোক। সবথেকে বেশি প্রভাব পড়েছে সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় এবং সেখানে আরও বেশি নজর দিতে হবে।’ সঙ্গে তিনি বলেন, ‘জীবনের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য ঝেড়ে ফেলার সময় এটা এবং ওই লক্ষ্যের জন্য নিরলসভাবে পরিশ্রম করুন।’

বন্ধ করুন