গোবর ও গোমূত্র গুলে মহহৌষধ বানানোয় ব্যস্ত দুই গো-শালা কর্মী।
গোবর ও গোমূত্র গুলে মহহৌষধ বানানোয় ব্যস্ত দুই গো-শালা কর্মী।

এবার করোনাভাইরাস রুখতে গোমূত্র পান করার টিপস বিজেপি বিধায়কের

গোমূত্র ব্যবহার করলে শুধু শরীরের ভিতরেই নয়, বায়ুমণ্ডলকেও করোনাভাইরাস মুক্ত করা সম্ভব বলে দাবি করেছেন উত্তরাখণ্ডের বিজেপি বিধায়ক সঞ্জয় গুপ্তা।

করোনাভাইরাস রোধ করতে গোবর ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছিলেন অসমের বিজেপি বিধায়ক। এবার গোমূত্র পান করে সংক্রমণে রুখে দিতে উদ্যোগী দলের উত্তরাখণ্ডের বিধায়ক।

গোমূত্র ব্যবহার করলে শুধু শরীরের ভিতরেই নয়, বায়ুমণ্ডলকেও করোনাভাইরাস মুক্ত করা সম্ভব বলে দাবি করেছেন উত্তরাখণ্ডের বিজেপি বিধায়ক সঞ্জয় গুপ্তা। বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন চলাকালীন চামোলিতে সাংবাদিক বৈঠকে এই দাবি করেন বিধায়ক।

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে কী কী করণীয়, এই বিষয়ে শুক্রবার বক্তব্য পেশ করেন সঞ্জয় গুপ্তা। তাঁর দাবি, ‘প্রাচীন বৈদিক রীতি মেনে হিন্দু মতে যজ্ঞ করলে বাতাসে উপস্থিত মারাত্মক করোনাভাইরাস মরবে।’

এ ছাড়া গোবর দিয়ে মেঝে মুছলেও মারণভাইরাস রোধ করা সম্ভব বলে দাবি করেন সঞ্জয়। তিনি বলেন, ‘আগে দেশের মানুষ বাড়ির মেঝে গোবর দিয়ে নিকোতো কারণ কীটনাশক হিসেবে প্রমাণিত। কিন্তু এ যুগে লোকে তা ভুলে গিয়েছে। আমি নিশ্চিত, যদি তাঁরা ফের এই প্রথা শুরু করেন, তা হলে তাঁদের বাড়িতে ভাইরাসের অনুপ্রবেশ হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ছাড়া, মানুষের গোমূত্র পান করাও উচিত। গো-মাতার থেকে পাওয়া সব কিছুতেই দৈব উপাদান রয়েছে। তাই গোমূত্র পান করলে শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রমণ হবে না।’

বিজেপি বিধায়ক যে দিন করোনাভাইরাসের উপরে তাঁর সাম্প্রতিক বার্তা দিলেন, সে দিনই নেপাল সীমান্তে ১৭,৩৮৭ ভারতীয় নাগরিককে করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে পরীক্ষা করা হয় বলে জানিয়েছেন উত্তরাখণ্ডের মন্ত্রী মদন কৌশিক।

তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত দেশ থেকে ফিরে আসা উত্তরাখণ্ডের ৪৩৭ জন বাসিন্দাকে নজরদারির আওতায় রাখা হয়েছে। এঁদের মধ্যে ৩১৭ জনের প্রাথমিক পরীক্ষা শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারি হাসপাতালগুলির আইসোলেশন ওয়ার্ডে ২৪১টি শয্যা তৈরি রাখা হয়েছে।

বন্ধ করুন