বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নির্বাচনের আগে ফেরানো হোক রাজ্যের মর্যাদা, মোদীকে বার্তা 'হতাশ' গুপকার জোটের
 পিপলস অ্যালায়েন্স ফর গুপকার ডিক্লারেশন
 পিপলস অ্যালায়েন্স ফর গুপকার ডিক্লারেশন

নির্বাচনের আগে ফেরানো হোক রাজ্যের মর্যাদা, মোদীকে বার্তা 'হতাশ' গুপকার জোটের

  • ফের জম্মু ও কাশ্মীরকে রাজ্যের মর্যাদা ফেরানোর দাবি তুললেন গুপকার জোটের নেতারা।

ফের জম্মু ও কাশ্মীরকে রাজ্যের মর্যাদা ফেরানোর দাবি তুললেন গুপকার জোটের নেতারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠকের পর এই প্রথম একসঙ্গে মিলিত হলেন পিপল'স অ্যালায়েন্স ফর গুপকার ডিক্লারেশনের সদস্যরা। এর আগে গত ২৪ জুন দিল্লিতে জম্মু ও কাশ্মীরের ১৪ জন নেতার সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

যদিও বৈঠক শেষে পিএজিডি-র নেতারা সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে চাননি। পরে সিপিএম নেতা মোহাম্মদ ইউসুফ করিঘামি একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বলেন, 'মোদীর সঙ্গে বৈঠকে হতাশ সব গুপকার সদস্য। দিল্লির বৈঠকে সেভাবে কোনও বিশ্বাস তৈরি হয়নি দুই পক্ষের মধ্যে। ২০১৯ সালের অগাস্টের পর বন্দি সকল রাজনৈতিক নেতাকে মুক্তি দেওয়া হোক। এভাবে জম্মু ও কাশ্মীরের মানুষের বিশ্বাস ফিরে পাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে।' পাশাপাশি জানানো হয়, সব দলই চায় যাতে নির্বাচনের আগে জম্মু ও কাশ্মীরকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় রাজ্যের মর্যাদা।

রবিবার বিকেলে শ্রীনগরে ন্যাশনাল কনফারেন্সের সভাপতি ফারুক আবদুল্লার বাসভবনে এই বৈঠক হয়। নেতৃত্ব দেন ফারুক আবদুল্লা। উপস্থিত ছিলেন পিডিপি-র সভাপতি মেহবুবা মুফতি, ন্যাশনাল কনফারেন্সের সহ-সভাপতি ওমর আবদুল্লা, এনপি সাংসদ হাসনাইন মাসুদি, অ্যালায়েন্সের মুখপাত্র ইউসুফ তারিগামি, জম্মু-কাশ্মীরের পিপল'স মুভমেন্ট সভাপতি জাভেদ মুসতফা মীর।

গত সপ্তাহে এই বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে মেহবুবা মুফতির অনুপস্থিতির কারণে তা বাতিল হয়ে যায়। এর মধ্যে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়ার কথা ভাবছে কেন্দ্র সরকার। তাই জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ডিলিমিটেশন কমিটির আসার কথা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে। তার দু'দিন আগে মিলিত হলেন গুপকার জোটের নেতারা।

বন্ধ করুন