বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ক্ষমা চাওয়ার ডেডলাইন পার! শিবরাজের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা, কী ঘটেছে মধ্যপ্রদেশে
শিবরাজ সিং চৌহান (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)
শিবরাজ সিং চৌহান (ফাইল ছবি) (HT_PRINT)

ক্ষমা চাওয়ার ডেডলাইন পার! শিবরাজের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা, কী ঘটেছে মধ্যপ্রদেশে

  • মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের বিরুদ্ধে দায়ের হন মানহানির মামলা। 

নতুন করে বিতর্কে জড়ালেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। মধ্যপ্রদেশের জবলপুর কোর্টে তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেছেন কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ ও সিনিয়র অ্যাডভোকেট বিবেক কৃষ্ণ তানখা। উল্লেখ্য, পঞ্চায়েত নির্বাচনে ওবিসি রিজার্ভেশন নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের স্থগিতাদেশ সম্পর্কে ভুল তথ্য ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের বিরুদ্ধে।

আইনজীবী শশাঙ্ক শেখর জানিয়েছেন, ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনে অনগ্রসর শ্রেণি(ওবিসি) আসনের ক্ষেত্রে একটি নির্দেশ আগেই দিয়েছিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। অভিযোগ, এরপর এই নির্দেশ নিয়ে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান, ভিডি শর্মা, ভুপেন্দ্র সিংরা আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন।  সাংসদ তনখার আইনজীবীর অভিযোগ, ওই তিন বিজেপি নেতা নিজেদের বক্তব্যে ভুল অলঙ্কার ব্যবহার করেছেন। যার জেরে বিশিষ্ট আইনজীবী ও রাজ্যসভার সাংসদ বিবেক তনখার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়। প্রাক্তন অ্যাডভোকেট জেনারেল আইনজীবী শশাঙ্ক শেখর বলেন, 'এরপর সাংসদ তনখা আইনি নোটিস পাঠিয়ে এই বিষয়ে জনতার সামনে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেন তিন দিনের মধ্যে। এরপর সময় পেরিয়ে যেতেও আসেনি ক্ষমার বার্তা।' উল্লেখ্য, ক্ষমা চাওয়ার ডেডলাইন পার হতেই শিবরাজের বিরুদ্ধে মানহানির মামলার নোটিস যায় তানখার তরফে।

এরপর মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সহ তিন বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৯ ধারায় মানহানির মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে, মধ্যপ্রদেশে বিজেপির দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা লোকেন্দ্র পরাশর জানিয়েছেন, 'আমরা বিভিন্ন শ্রেণির জন্য কাজ করে কংগ্রেসের মুখোশ খুলে দিয়েছি।ওরা নিজেদের ভাবমূর্তি রক্ষার জন্য যা ইচ্ছে তাই করতে পারে, কিন্তু আমরা সাধারণ মানুষের সামনে ওদের মুখোশ খুলেছি। ' উল্লেখ্য, এর আগে কংগ্রেস নেতা তথা ভোপাল জেলা পঞ্চায়েত প্রেসিডেন্ট মনমোহন নগর পঞ্চায়েত নির্বাচনে অনগ্রসর শ্রেণির সংরক্ষণ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। এই নির্বাচনে রাজ্যসরকার সংবিধানের নিয়ম লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করেন ওই কংগ্রেস নেতা। উল্লেখ্য, মনমোহন নগরের তরফে সেই সময় আইনজীবী ছিলেন বিবেক তনখা। আর সেই ইস্যুতেই মুখ খুলে নতুন বিতর্কে জড়িয়েছেন শিবরাজ সিং চৌহান।

 

 

বন্ধ করুন