আবারও ফাঁসি পিছিয়ে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ নির্ভয়ার মা আশাদেবী (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
আবারও ফাঁসি পিছিয়ে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ নির্ভয়ার মা আশাদেবী (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)

আমাদের পুরো সিস্টেম দোষীদের সমর্থন করে, ফাঁসি পিছোনোর পর ক্ষোভ নির্ভয়ার মা'র

  • ৩ মার্চ সকাল ৬টায় ফাঁসি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তা পিছিয়ে গেল।

ফাঁসি কার্যকরের আগে বাকি ছিল মেরেকেটে ১৩ ঘণ্টা। তার আগে আবারও পিছিয়ে গেল নির্ভয়াকাণ্ডে দণ্ডিতদের ফাঁসি। অর্থাৎ তৃতীয় মৃত্যু পরোয়ানা অনুযায়ী ৩ মার্চ সকাল ৬টায় ফাঁসি হচ্ছে না।

আরও পড়ুন : 'আগুন নিয়ে খেলছেন', নির্ভয়া দণ্ডিতের আইনজীবীকে সতর্ক করল দিল্লির আদালত

এদিন বিকেল পাঁচটা নাগাদ দিল্লির একটি আদালতের অতিরিক্ত দায়রা বিচারক ধর্মেন্দ্র রানা জানান, এক দণ্ডিত পবন কুমার গুপ্তের প্রাণভিক্ষার আর্জি এখনও রাষ্ট্রপতি ভবনে পড়ে আছে। তাই অনির্দিষ্টকালের জন্য ফাঁসির উপর স্থগিতাদেশ দেওয়া হচ্ছে। বিচারক বলেন, 'পরবর্তী আদেশ পর্যন্ত স্থগিত (ফাঁসি)।'

আরও পড়ুন : 'সরকারকে দণ্ডিতদের ফাঁসি দিতে হবে', কেঁদে ফেললেন নির্ভয়ার মা

আবারও ফাঁসি পিছিয়ে যাওয়ার স্বভাবতই ক্ষোভ উগরে দেন নির্ভয়ার মা আশাদেবী। তিনি বলেন, 'নিজের রায়ের ভিত্তিতেই দণ্ডিতদের ফাঁসিতে ঝোলাতে কেন এত দেরি করছে আদালত? একাধিকবার ফাঁসি পিছিয়ে দেওয়ার বিষয়টি চোখে আঙুল দিয়ে আমাদের ব্যবস্থার (সিস্টেমের) ব্যর্থতা দেখিয়ে দিচ্ছে। আমাদের পুরো সিস্টেম দোষীদের সমর্থন করে।'

আরও পড়ুন : হিংস্র শ্বাপদের মতো মরবে নির্ভয়ার অত্যাচারীরা, ঘোষণা ফাঁসুড়ের

দিনের শুরুতে অবশ্য ফাঁসি রোধের যে আবেদন করেছিল পবন, তা খারিজ করে দেন বিচারক। যে কোনও আইনি সাহায্য নেওয়ার জন্য গত মাসে দিল্লি হাইকোর্ট যে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিল, তা পবন মিস করেছে বলেও উল্লেখ করেন বিচারক। তবে সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন খারিজ হওয়ার পর রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে প্রাণভিক্ষার আর্জি জানানোয় রায়দান স্থগিত রেখেছিলেন বিচারক। পরে ফাঁসির উপর স্থগিতাদেশ দেন তিনি।

আরও পড়ুন : নির্ভয়া কাণ্ডের সাত বছর- ফাঁসুড়ে হতে চেয়ে বিদেশ থেকে চিঠি তিহাড়ে

উল্লেখ্য, চার দণ্ডিতের বিরুদ্ধে প্রথম যে মৃত্যু পরোয়ানা জারি হয়েছিল, সেই অনুযায়ী তাদের গত ২২ জানুয়ারি ফাঁসি কার্যকরের দিন ধার্য হয়েছিল। কিন্তু তা পিছিয়ে যায়। নয়া মৃত্যু পরোয়ানায় গত ১ ফেব্রুয়ারি দিন কার্য হয়েছিল। কিন্তু তাও পিছিয়ে যায়। শেষপর্যন্ত তৃতীয় মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট জানায়, আগামী ৩ মার্চ চার দণ্ডিতের ফাঁসি কার্যকর হবে। কিন্তু এদিনের রায়ের পর কবে ফাঁসি কার্যকর হবে, তা নিয়ে ফের জটিলতা তৈরি হল।

বন্ধ করুন