বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাড়ির উপার্জনশীন ব্যক্তির মৃত্যু কোভিডে, নির্ভরশীলকে ফ্যামিলি পেনশন সরকারের
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

বাড়ির উপার্জনশীন ব্যক্তির মৃত্যু কোভিডে, নির্ভরশীলকে ফ্যামিলি পেনশন সরকারের

  • কোভিডে অনাথ শিশুদের পাশে দাঁড়ানোর কথাও জানিয়েছে কেন্দ্র।

কোভিডের করাল ছায়া গোটা দেশ জুড়ে। একের পর এক ব্যক্তির মৃত্যু। বাড়ির একমাত্র উপার্জনশীল ব্যক্তিকেও কেড়ে নিচ্ছে করোনা। আচমকাই অথৈ জলে পড়ে যাচ্ছে পরিবারগুলি। কীভাবে আগামী দিন চলবে তা কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁরা। এবার সেই পরিবারগুলির জন্য ফ্যামিলি পেনশনের ব্যবস্থা করবে সরকার। মূলত সেই উপার্জনশীল ব্যক্তির উপর নির্ভর ছিলেন এমন পরিবারের সদস্যই এই পেনশন পাওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। এমল্পয়িজ স্টেট ইনসিউরেন্স কর্পোরেশন পেনসন স্কিমের মাধ্যমে এই ব্যবস্থা চালু করা হবে। শ্রমিকের গড়পরতা মজুরির ৯০ শতাংশ হারে এই পেনশন মিলতে পারে। গত বছরের ২৪শে মার্চ থেকে ২০২২য়ের ২৪শে মার্চ পর্যন্ত এই ধরণের যে মৃত্যুর ঘটনা হয়েছে তার পরিপ্রেক্ষিতেই মিলবে পেনশন। আপাতত এটাই বলা হচ্ছে। ওই পরিবারগুলির পাশে রয়েছে ভারত সরকার, জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। 

প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, 'পরিবারগুলি যে ভয়াবহ আর্থিক সংকটের মধ্যে পড়েছেন তা থেকে কিছুটা স্বস্তি দেবে এই স্কিম।'পাশাপাশি কোভিড পরিস্থিতিতে চুক্তিভিত্তিক ও অস্থায়ী কর্মীদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোরও উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। শ্রম মন্ত্রকের তরফে এব্যাপারে বিস্তারিত গাইডলাইন প্রকাশ করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত কোভিডের থাবায় অনাথ হওয়া শিশুদের পাশেও ইতিমধ্যে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাদের পড়াশোনার যাবতীয় ব্যবস্থা করার কথা জানিয়েছে সরকার। এবার কোভিডে উপার্জনশীল ব্যক্তির মৃত্যুর পর তাঁর উপর নির্ভরশীল ছিলেন এমন ব্যক্তিকেও আর্থিক সহায়তা করার কথা ঘোষণা করল কেন্দ্র। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এর জেরে কিছুটা হলেও কিছুটা আশার আলো দেখবে অসহায় পরিবারগুলি।

 

বন্ধ করুন