বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ঝাড়ুদার থেকে ডেপুটি কালেক্টর! তাক লাগালেন দুই সন্তানের মা আশা
ছবি : টুইটার  (Twitter)
ছবি : টুইটার  (Twitter)

ঝাড়ুদার থেকে ডেপুটি কালেক্টর! তাক লাগালেন দুই সন্তানের মা আশা

  • রাজস্থান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস পাশ করে এখন ডেপুটি কালেক্টর হতে চলেছেন দুই সন্তানের মা আশা।

রাজস্থানের যোধপুর মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের ঝাড়ুদার ছিলেন আশা কান্দালা। রাজস্থান অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস পাশ করে এখন ডেপুটি কালেক্টর হতে চলেছেন দুই সন্তানের মা আশা।

আশা জানিয়েছেন, বছর আটেক আগে তাঁর স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়। সেই সময় থেকেই দুই সন্তানের দেখভাল করেন তিনি। একই সঙ্গে গ্র্যাজুয়েশানও শেষ করেন। এরপর সরকারি চাকরির প্রস্তুতি শুরু করেন। UPSC-র প্রস্তুতি শুরু করেন। বিভিন্ন পরীক্ষাও দিচ্ছিলেন। কিন্তু বাপেরবাড়িতে বিনা আয়ে বেশিদিন থাকতে তাঁর সংকোচ বোধ হচ্ছিল।

২০১৯ সালে RAS-এর মেইনস পরীক্ষা দেওয়ার দুই সপ্তাহ পরে যোধপুর মিউনিসিপ্যালিটিতে সুইপারের ইন্টারভিউয়ের রেজাল্ট আসে। সেখানে তিনি চাকরি পান। সুইপারের কাজে যোগ দিয়েছিলেন আশা। গত ২ বছর যোধপুরের রাস্তায় মিউনিসিপ্যালিটির সাফাই কর্মী হিসাবে কাজ করেছেন তিনি। 

এদিকে বছর ঘুরে গেলেও RAS রেজাল্ট আর বের হয় না। আশাই ছেড়ে দিয়েছিলেন আশা। তবে শেষ পর্যন্ত ২ বছর বা রেজাল্ট বের হল। গত সপ্তাহে RAS-এর রেজাল্ট বের হলে দেখা যায় গ্রুপ এ-তেই ভালো স্থান পেয়েছেন তিনি।

যোধপুর পুরসভার পুরপ্রশাসক জানিয়েছেন, 'কয়েকদিন আগেই সুইপারদের পদ স্থায়ী করা হয়েছিল। তারপরেই হঠাত্ শুনলাম আমাদের একজন সুইপার RAS পাশ করেছেন। পরীক্ষার ফল না বের হওয়ায় এখানে কাজ করছিলেন। ওনার সাফল্য সত্যিই অনুপ্রেরণাদায়ক।'

এরপর সম্ভবত ডেপুটি কালেক্টর পদে তাঁর নিয়োগ হতে পারে, জানালেন আশা। বিবাহবিচ্ছেদের পরে পরিবারের সকলের তাঁর পাশে থাকা ও ভরসা জোগানোর জন্য ধন্যবাদ জানান তিনি।

বন্ধ করুন