রাহুল গান্ধী। ফাইল ছবি
রাহুল গান্ধী। ফাইল ছবি

সোশ্যাল মিডিয়া নয়, হিংসা ছাড়ুন, মোদীকে শলা রাহুলের

  • প্রধানমন্ত্রীর সেই টুইটের স্ক্রিনশট নিয়ে পালটা টুইট করেন রাহুল গান্ধী। সঙ্গে লেখেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়া নয় ঘৃণা ছাড়ুন।’

মোদীর সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়ার জল্পনার মধ্যেই ময়দানে নামলেন রাহুল। প্রধানমন্ত্রীকে পরামর্শ দিলেন, ‘ঘৃণা ছাড়ুন, সোশ্যাল মিডিয়া নয়।’

সোমবার রাত ৯টা নাগাদ নরেন্দ্র মোদীর এক টুইটে শোরগোল পড়ে। টুইটে তিনি জানান, আগামী রবিবার সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বিদায় নেওয়ার কথা নিয়ে ভাবছেন তিনি। ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, ইউটিউব থেকে বিদায় নিতে পারেন তিনি। এই নিয়ে পরে বিস্তারে জানাবেন বলেও উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এর পরই প্রধানমন্ত্রীর সেই টুইটের স্ক্রিনশট নিয়ে পালটা টুইট করেন রাহুল গান্ধী। সঙ্গে লেখেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়া নয় ঘৃণা ছাড়ুন।’


লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ভরাডুবির পর দলের সভাপতির পদ থেকে অব্যহতি নিয়েছেন রাহুল গান্ধী। তার পর থেকে আর নিয়মিত প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাকযুদ্ধে জড়াতে দেখা যায় না তাঁকে। আপাত রাজনৈতিক শৈত্যের মধ্যেই রাহুলের কটাক্ষে মোদী কী জবাব দেন এখন সেটাই দেখার।

বলে রাখি, বিশ্বের সব থেকে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া ব্যক্তিত্বদের একজন নরেন্দ্র মোদী। গোটা বিশ্বে কোটি কোটি মানুষ তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলি ফলো করেন। বর্তমানে টুইটারে তাঁর প্রায় ৫.৩৩ কোটি ফলোয়ার রয়েছে। ৪৪,৭২২ জন ফলোয়ার করেছেন ফেসবুকে। ইউটিউবে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা প্রায় ৪৫ লক্ষ। ইন্সটায় প্রায় ৩.৫ কোটি।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর এই সিদ্ধান্তের কোনও কারণ জানাননি। নরেন্দ্র মোদীর এহেন সিদ্ধান্তে কার্যত হতবাক সবাই।

বন্ধ করুন