বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উত্তর সিকিম থেকে উদ্ধার ৬০০ পর্যটক, টানা বৃষ্টিতে ধস পাহাড়ে

উত্তর সিকিম থেকে উদ্ধার ৬০০ পর্যটক, টানা বৃষ্টিতে ধস পাহাড়ে

সিকিমে টানা বৃষ্টি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে এএনআই)

দার্জিলিংয়ের কিছু জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। তবে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে বিশেষ যাতায়াত করবেন না। কিছু জায়গায় ধস নামলেও দ্রুত ধস সরানোর চেষ্টা হয়েছে। তিস্তার তীরে বসবাসকারীদের জলসীমার উপর নজর রাখার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

প্রমোদ গিরি

টানা বৃষ্টির জেরে উত্তর সিকিমের বহু এলাকা কার্যত অবরুদ্ধ। প্রচুর পর্যটক আটকে পড়েছেন বলে খবর। এদিকে আবহাওয়া দফতর আগে থেকেই সিকিমের জন্য লাল সতর্কতা জারি করেছিল। উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলার জন্য় জারি করা হয়েছিল কমলা সতর্কতা। পরিসংখ্যান অনুসারে উত্তর সিকিমে মঙ্গলবার গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৮.২ মিমি বৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গনের জেলা কালেক্টর এবি কারকি জানিয়েছেন, লাচেন ও গুরুদাংমার লেক, লাচুং ও ইয়ামথাংয়ের মাঝে তিনটি বড় ধস নেমেছে। উত্তর সিকিমে যাওয়ার ক্ষেত্রে আমরা টুরিস্ট পারমিট দেওয়া বন্ধ করেছি।

সেনা, বিআরও সিকিম পুলিশ, জেলা প্রশাসন দিনরাত রাস্তা পরিষ্কার রাখার কাজ করছে। অন্তত ৬০০ পর্যটককে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

উত্তর সিকিমে অন্তত ২৬জন বাইকার আটকে পড়েছেন বলে খবর। তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। এদিকে পুজোর মরসুমে দলে দলে বেড়াতে গিয়েছেন সিকিমে। আর সেখানে এই বিপত্তি।

দার্জিলিংয়ের কিছু জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। তবে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, ১০ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে বিশেষ যাতায়াত করবেন না। কিছু জায়গায় ধস নামলেও দ্রুত ধস সরানোর চেষ্টা হয়েছে। তিস্তার তীরে বসবাসকারীদের জলসীমার উপর নজর রাখার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

 

বন্ধ করুন