বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Voter card Application: ১৭ বছর বয়সে করা যাবে ভোটার কার্ডের আবেদন! নির্বাচন কমিশনের ঘোষণায় কী জানানো হল
ভোটার তালিকার জন্য আবেদন করতে পারেন ১৭ বছরের উর্ধ্বের নাগরিকরা। (ছবিটি প্রতীকী)

Voter card Application: ১৭ বছর বয়সে করা যাবে ভোটার কার্ডের আবেদন! নির্বাচন কমিশনের ঘোষণায় কী জানানো হল

ভোটার কার্ডের জন্য আবেদনের বয়সসীমা এবার কমিয়ে দেওয়া হল। ফলে ভোটার তালিকায় নাম নথিবদ্ধ করার জন্য এবার থেকে ১৭ বছর বয়সেই করা যেতে পারে আবেদন।

ভারতের নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে ভোটার আইডি কার্ডের জন্য এবার থেকে ১৭ বছর বয়সীরাও আবেদন করতে পারবেন। তবে এরজন্য বয়স হতে হবে ১৭ +। অর্থাৎ যাঁরা সেই বছরেই ১৮ বছর বয়স্ক হচ্ছেন তাঁরা এই কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন আগাম। ফলে এবার থেকে ১৭ বছর বয়সেই আবেদন করা যাবে ভোটার কার্ডের জন্য।

ফলে ভোটার কার্ডের জন্য আবেদনের বয়সসীমা এবার কমিয়ে দেওয়া হল। ফলে ভোটার তালিকায় নাম নথিবদ্ধ করার জন্য এবার থেকে ১৭ বছর বয়সেই করা যেতে পারে আবেদন। নির্বাচন কমিশনের তরফে বলা হয়েছে, ‘ ১৭+ যাঁদের বয়স তাঁরা ভোটার তালিকায় নাম তোলার জন্য আবেদন করতে পারেন অগ্রিম। এর যোগ্যতার মাপকাঠি অনুযায়ী ১ জানুয়ারির নিরিখে বয়স ১৮ বছর হতে হবে না।’  মাঙ্কিপক্স ত্রাস! সেক্স পার্টনারের সংখ্যা কমানোর পরামর্শ হু-এর

উল্লেখ্য, এক্ষেত্রে ভোটার কার্ডে নাম তোলার জন্য কোয়ার্টারলি রেজিস্ট্রেশন একটি বড় দিক। সেই পথেই অগ্রসর হয়ে অনলাইনে এই পদ্ধতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। ইতিমধ্যেই নির্বাচন কমিশন ১৭৩৬১৮১ জন নতুন ভোটারকে তালিকাভূক্ত করেছে। এঁদের বয়স ১৮ থেকে ১৯  বছরের মধ্যে। গত বছর ভোটার তালিকায় যোগ হন ১৪৫২৬৬৭৮ জন। এছাড়াও কমিশনের নজরে রয়েছে সেই সমস্ত এলাকা যেখানে খুবই কম সংখ্যক মানুষ নিজেদের নাম ভোটার তালিকায় তুলে ধরেন। সেই সমস্ত জায়গায় যাতে জন সচেতনতা গড়ে তোলা যায় তার বার্তা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন