বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উত্তরপ্রদেশে ধর্মীয় স্থানে ‘বেলুন হামলা’, হোলিতে জোর করে রাঙিয়ে দেওয়া হল ইমামকে

উত্তরপ্রদেশে ধর্মীয় স্থানে ‘বেলুন হামলা’, হোলিতে জোর করে রাঙিয়ে দেওয়া হল ইমামকে

হোলিতে জোর করে রাঙিয়ে দেওয়া হল বারেলির এক ইমামকে

উত্সব পালনের দিন বারেলিতে পরিস্থিতি আচমকা উত্তেজনাপূর্ণ হয়ে যায়, পরে পরিস্থিতি শান্ত করে পুলিশ। ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয় পিএসি বাহিনী।

শুক্রবার হোলির উৎসব চলাকালীন উত্তরপ্রদেশের বারেলি জেলার বাহেরিতে একটি ধর্মীয় স্থানে কিছু দুষ্কৃতী রঙ লাগিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। ধর্মীয় স্থানের মৌলবীরা এর বিরোধিতা করলে দুষ্কৃতীরা তাঁদের গায়েও রঙ দেয় বলে অভিযোগ। পাশাপাশি সেই ধর্মীয়স্থানের ইমামকে গালিগালাজ করে হত্যার হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। তাছাড়া ধর্মীয় স্থানের ভেতরেও ছুড়ে দেওয়া হয় রঙে ভরা বেলুন। এ নিয়ে উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। তড়িঘড়ি করে পুলিশ বাহিনী আসে। অনেকক্ষণ পর দুই পক্ষকে বুঝিয়ে শুনিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়। এ ক্ষেত্রে বাহেড়ি কোতয়ালিতে ইমামের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার দুপুর ২টো নাগাদ বাহেড়িতে হোলির মিছিল বের হয়েছিল। রঙের উৎসবের পাশাপাশি মিছিলে বিজেপির জয়ও পালন করা হচ্ছিল। সেই সময় মিছিলে থাকা শত শত লোক রঙ বর্ষণ করছিল। হোলি চক থেকে মিছিল বের হয়েছিল। এখানেই কাছাকাছি একটি ধর্মীয় স্থান ছিল। সেখান দিয়ে মিছিল যাওয়ার সময় উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি হয়। ধর্মীয় স্থানের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ইমামের গায়ে রঙ লাগিয়ে দেন কেউ একজন। এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। এরপরই মিছিলে থাকা কয়েকজন একটি রঙিন বেলুন ছুড়ে মারে ধর্মীয় স্থানের ভিতরে।

ঘটনা জানাজানি হতেই অন্য সম্প্রদায়ের থেকেও প্রচুর লোক জড়ো হয় ঘটনাস্থলে। দুই পক্ষের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। উত্তেজনা বাড়তেই পুলিশ পৌঁছায় ঘটনাস্থলে। পুলিশ ও পিএসি উভয় পক্ষকে বোঝানোর পর পরিস্থিতি শান্ত হয়। এ ঘটনায় ইমামের পক্ষ থেকে কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে সেই স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে পিএসি ফোর্স।

বন্ধ করুন