বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পুলিশের সামনে হাঁটু গেড়ে মায়ের প্রাণভিক্ষা ব্যক্তির!‌ ভাইরাল ভিডিয়োয় তোলপাড়
পুলিশের সামনে হাঁটু মুড়ে মাকে বাঁচানোর আর্তি ব্যক্তির!‌ ভাইরাল ভিডিয়োয় তোলপাড় ছবি (‌স্ক্রিনগ্র‌্যাব)‌
পুলিশের সামনে হাঁটু মুড়ে মাকে বাঁচানোর আর্তি ব্যক্তির!‌ ভাইরাল ভিডিয়োয় তোলপাড় ছবি (‌স্ক্রিনগ্র‌্যাব)‌

পুলিশের সামনে হাঁটু গেড়ে মায়ের প্রাণভিক্ষা ব্যক্তির!‌ ভাইরাল ভিডিয়োয় তোলপাড়

  • ভাইরাল ভিডিয়োয় তোলপাড়

‘‌মা’‌ কে বাঁচাতে পুলিশের পায়ে পড়লেন অসহায় এক ছেলে। হাতজোড় করে মায়ের প্রাণভিক্ষা চাইলেন পুলিশের কাছে, যাতে অক্সিজেন দিয়ে কোনওভাবে তাঁর করোনা আক্রান্ত মা'কে বাঁচিয়ে নেন তাঁরা। উত্তরপ্রদেশে আগ্রায় ঘটা এই ঘটনায় কেঁপে উঠল গোটা দেশ। সেই ভিডিয়ো মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় নেটদুনিয়ায়। 

কয়েকটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, ওই ব্যক্তি তাঁর মায়ের জন্য যে অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করেছিলেন, সেটি যাতে কেড়ে না নেওয়া হয়, সেজন্য পুলিশকে অনুরোধ করেছিলেন তিনি। অবশ্য পুলিশ পাল্টা দাবি করেছে যে, যখন খালি সিলিন্ডারটি নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, তখন তিনি শুধুমাত্র একটি নতুন অক্সিজেন সিলিন্ডারের জন্য অনুরোধ করেছিলেন।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে (‌যদিও ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা)‌। ‌পরনে পিপিই কিট পরা এক ব্যক্তি। ছুটে এসে হাটু মুড়ে বসে পড়লেন পুলিশের সামনেই। দু’‌হাত জোড় করে মাথা নুইয়ে তাঁর আকুল আর্তি, ‘‌আপকে চরণো মে বিনতি করতা হুঁ, ভইয়া মেরি মা কো বচা লো’‌(আপনার পায়ে পড়ে অনুরোধ করছি, আমার মাকে বাঁচান)‌। মাটিতে প্রায় শুয়ে পড়া ওই ব্যক্তিকে সম্ভবত তাঁর কোনও আত্মীয় টেনে তোলেন।তাঁকে বলতে শোনা যায় ‌‘‌এদের সামনে বলে কিছু হবে না, অহেতুক মানুষের প্রাণ নিচ্ছে!’‌ যখন এই ঘটনাটি ঘটছে ঠিক সেই সময়ই তাঁদের পাশ থেকে অন্য দু’‌জন ব্যক্তিকে সিলিন্ডার বয়ে নিয়ে যেতে দেখা যায়।

এই ভিডিওটি গত দু’‌দিন আগে আগ্রার উপাধ্যায় হাসপাতালের বাইরে থেকে তোলা হয় বলে দাবি করা হয়েছে।এই ঘটনা নিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে আক্রমণ করেছে যুব কংগ্রেস।

এই ভিডিওটিকে তাঁদের টুইটার পেজে শেয়ার করে সেখানে লেখা হয়েছে, 'সত্যিই হৃদয় বিদারক একটি ভিডিও। উত্তরপ্রদেশের আগ্রার ওই ব্যক্তি তাঁর মায়ের জন্য যে অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করেছিলেন, সেটি যাতে না কেড়ে নেওয়া হয়, সেজন্যই তিনি পুলিশের কাছে ভিক্ষা করছিলেন তিনি। এটা পুলিশের অমানবিক কাজ। এইভাবে আপনি আপনার জনগণের সঙ্গে আচরণ করেন মিঃ যোগী?‌’‌

বুধবার পুলিশ এই অভিযোগ উড়িযে দাবি করেছে, দু’‌দিন আগে আগ্রার উপাধ্যায় হাসপাতালের বাইরে থেকে এই ভিডিয়োটি তোলা হয়েছে। আগ্রায় আক্সিজেনের অভাবের কারণে কিছু মানুষ নিজেদের উদ্যোগে তা জোগাড় করে অসুস্থ আত্মীয়দের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠান।

পুলিশ বলে, ‘‌এই ভিডিয়োয় খালি সিলিন্ডারটি দু’‌জন লোক নিয়ে গিয়েছে। সেজন্য লোকটি তাঁর জন্যও সিলিন্ডার ব্যবস্থা করার করতে পুলিশকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন, যাতে হাসপাতালের ভিতরে তাঁর আত্মীয়ের চিকিৎসা করা যায়।’‌

বন্ধ করুন