বাড়ি > ঘরে বাইরে > LIC-এর শেয়ার বাজারে ছাড়া হতে পারে চলতি অর্থবর্ষেই, জানালেন অর্থসচিব
LIC-এর কিছু পরিমাণ শেয়ার IPO-এর মাধ্যমে বিক্রি করার পরিকল্পনা করেছে সরকার।
LIC-এর কিছু পরিমাণ শেয়ার IPO-এর মাধ্যমে বিক্রি করার পরিকল্পনা করেছে সরকার।

LIC-এর শেয়ার বাজারে ছাড়া হতে পারে চলতি অর্থবর্ষেই, জানালেন অর্থসচিব

চলতি অর্থবর্ষের দ্বিতীয়ার্ধ্বে অথবা পরবর্তী অর্থবর্ষে বাজারে আসতে পারে লাইফ ইন্সিওরেন্স কর্পোরেশনের (এলআইসি) শেয়ার।

চলতি অর্থবর্ষের দ্বিতীয়ার্ধ্বে অথবা পরবর্তী অর্থবর্ষে বাজারে আসতে পারে লাইফ ইন্সিওরেন্স কর্পোরেশনের (এলআইসি) শেয়ার। সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, রবিবার এই মন্তব্য করেন অর্থসচিব রাজীব কুমার।

শনিবার কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করার সময় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়েছিলেন, দেশের বৃহত্তম বিমা ও প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী সংস্থার কিছু শেয়ার IPO-এর মাধ্যমে বিক্রি করার পরিকল্পনা করেছে সরকার। যদিও ঠিক কত পরিমাণ এলআইসি-এর শেয়ার বিক্রি করা হবে, সে সম্পর্কে খোলসা করেননি অর্থমন্ত্রী।

এ দিন অর্থসচিব জানিয়েছেন, শেয়ারবাজারে এলআইসি-এর শেয়ার তালিকাভুক্ত করার জন্য বেশ কিছু প্রক্রিয়াগত ধাপ রয়েছে, যার সঙ্গে কিছু আইনি পরিবর্তনও প্রয়োজন।

তিনি বলেন, ‘আইন মন্ত্রকের সাহায্যে এই সমস্ত প্রক্রিয়া সারা হবে এবং ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। ২০২১ অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ভাগে নথিভুক্তকরণের কাজ সম্পূর্ণ হবে বলে মনে হচ্ছে।’

দেশের বৃহত্তম বিমা সংস্থা এলআইসি-এর বর্তমান ৪৩,৩০০ কোটি ডলার মূল্যের সম্পত্তি রয়েছে, যা ভারতের মোট মিউচুয়াল ফান্ড ব্যবসার চেয়েও বেশি। এই কারণে সংস্থার স্বল্প পরিমাণ শেয়ার বিক্রি করা হলেও বাজারে তার উল্লেখযোগ্য প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

১৯৫৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এলআইসি-এর ১০০% শেয়ারই সরকারের মালিকানাধীন। বাজারের শেয়ারের ৭০% নিয়ন্ত্রণ করে এই সংস্থা। অজস্র পলিসির বিচারে বিমা বাজারের ৭৬.২৮% রয়েছে এলআইসি-এর দখলে এবং ফার্স্ট-ইয়ার প্রিমিয়াম-এর ভিত্তিতে বাজারের ৭১% এই সংস্থার কুক্ষিগত।

এলআইসি এবং আইডিবিআই ব্যাঙ্কের শেয়ার বিক্রির মারফত্ বাজার থেকে ৯০,০০০ কোটি টাকা তুলতে সচেষ্ট হয়েছে কেন্দ্র। উল্লেখ্য, আইডিবিআই-এর মতো একাধিক সংস্থা রয়েছে এলআইসি-এর অধীনে রয়েছে। আইডিবিআই-তে সরকারের ৪৭.১১% শেয়ার রয়েছে।

বন্ধ করুন