গুয়াহাটির কামরূপে পাহারা জওয়ানের (ছবি সৌজন্য এএফপি)
গুয়াহাটির কামরূপে পাহারা জওয়ানের (ছবি সৌজন্য এএফপি)

লকডডাউনের মেয়াদ ২ সপ্তাহ বাড়ানোর আর্জি, লাল-অরেঞ্জ জোন বিন্যাসে অরাজি অসম

  • কেন্দ্রের শ্রেণীবিন্যাস অনুযায়ী রাজ্যের বিভিন্ন জায়গাকে লাল, কমলা বা সবুজ জোনে ভাগ করার পক্ষপাতী নয় অসম।

লকডাউনের মেয়াদ আরও দু'সপ্তাহ বাড়ানোর আর্জি জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি লিখল অসম। শুক্রবার গুয়াহাটিতে একথা জানান মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল।

আগামী সোমবার দেশজুড়ে তৃতীয় দফার লকডাউনের মেয়াদ শেষ হবে। ইতিমধ্যে চতুর্থ দফার লকডাউনের ঘোষণা করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে কতদিন লকডাউন বাড়ানো হবে, সে বিষয়ে কেন্দ্রের তরফে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

এই অবস্থায় সাংবাদিক বৈঠকে অসমের মুখ্যমন্ত্রী জানান, শুক্রবারের মধ্যে সব রাজ্যকে লকডাউন নিয়ে মতামত দিতে হবে। আর অসম সরকার ইতিমধ্যে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কারভাবে কেন্দ্রকে জানিয়ে দিয়েছে। লকডাউনের শিথিলতার প্রসঙ্গেও নিজেদের মতামত জানিয়েছে অসম।

এদিকে বৃহস্পতিবার অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা জানান, কেন্দ্রের শ্রেণীবিন্যাস অনুযায়ী রাজ্যের বিভিন্ন জায়গাকে লাল, কমলা বা সবুজ জোনে ভাগ করার পক্ষপাতী নয় সরকার। বরং স্থানীয়ভাবে 'কনটেনমেন্ট জোন' বা সংক্রামক এলাকা চিহ্নিত করার বিষয়টি কেন্দ্রকে জানিয়েছে বিজেপি-শাসিত রাজ্য।

হিমন্ত বলেন, ‘আমাদের সেই এলাকায় বিধিনিষেধ লাগু করা উচিত যেখানে সংক্রমণ আছে। অন্যান্য এলাকায় সামাজিক দূরত্ব ও মাস্কের বিধি মেনে সাধারণ কাজকর্মে ছাড় দেওয়া হবে। কনটেনমেন্ট এবং বাফার জোন নীতি মানার অনুমতি দেওয়ার কথা জানিয়েছে আমরা। লাল বা কমলা জোনের বিন্যাসের ফলে জল্পনা বা গুজব বাড়ছে।’

বন্ধ করুন