বাড়ি > ঘরে বাইরে > মরিয়া ড্যামেজ কন্ট্রোলে মহারাষ্ট্রের জোট সরকার, সমর্থনের আশ্বাস রাহুলের
রাহুল গান্ধী (PTI)
রাহুল গান্ধী (PTI)

মরিয়া ড্যামেজ কন্ট্রোলে মহারাষ্ট্রের জোট সরকার, সমর্থনের আশ্বাস রাহুলের

  • মহারাষ্ট্রের পরিস্থিতি নিয়ে রাহুলের দায় ঝেড়ে ফেলার মন্তব্যে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর বেফাঁস মন্তব্যের পর ড্যামেজ কন্ট্রোলে কোনও কসুর ছাড়ছে না মহারাষ্ট্রের জোট সরকার। 'সবকিছু ঠিক আছে' দেখাতে ম্যারাথন বৈঠক করল শিবসেনা, এনসিপি এবং কংগ্রেস। পাশাপাশি, রাহুলের সঙ্গে কথাও বললেন সেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে।

সেনা এবং কংগ্রেসের মধ্যে কথাবার্তার বিষয়ে অবহিত এক শিবসেনা নেতা জানান, রাহুলের মন্তব্যের পরই সঞ্জয় রাউত এবং রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা ‘ড্যামেজ কন্ট্রোল’-এর বিষয়ে একমত হন। তারপর মঙ্গলবার রাহুলের সঙ্গে কথা বলেন আদিত্য ঠাকরে। পরদিনই রাহুলের সঙ্গে কথা বলেন উদ্ধব। জোট সরকারের প্রতি দায়বদ্ধতার বিষয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধও হয়েছেন তাঁরা।

ওই নেতা জানিয়েছেন, উদ্ধবকে রাহুল জানান, কঠিন পরিস্থিতিতেও করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবিলায় ভালো কাজ করছে মহারাষ্ট্র সরকার। অপর এক শিবসেনা নেতা বলেন, ‘কংগ্রেস নেতা জানিয়েছেন, তাঁর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হয়েছে। তিনি খোলাখুলিভাবে মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রাজ্য এবং তার (সরকার) কেন্দ্রীয়তার গুরুত্ব আরোপ করেছেন। রাহুল জানিয়েছেন, সরকারের প্রতি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে কংগ্রেসের এবং মহামারী মোকাবিলায় সক্ষম জোট সরকার।’

মহারাষ্ট্র সরকারে কংগ্রেস 'গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী নয়' বলে রাহুল যে বিতর্কের সূত্রপাত করেছিলেন, তা দূরে সরিয়ে রেখে উদ্ধব পালটা জানান, মহারাষ্ট্রে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে সমানাধিকার রয়েছে কংগ্রেসের।

পাশাপাশি বুধবার উদ্ধবের সরকারি বাংলো 'ভরসা'-য় বৈঠকে বসেন মহারাষ্ট্র সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরা। সেখানে অবশ্য ছিলেন না উদ্ধব। তবে এনসিপি নেতা তথা উপ-মুখ্যমন্ত্রী অজিত পাওয়ারের পৌরহিত্যে সেই বৈঠকে হাজির ছিলেন জয়ন্ত পাটিল, সুভাষ দেশাই, বালাসাহেব থোরাটের মতো মন্ত্রীরা। মুম্বইয়ে করোনা মোকাবিলায় কী রণনীতি হবে, তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। আগামী ৩১ মে'র পর কীভাবে ধাপে ধাপে লকডাউন শিথিল করার কৌশল নিয়েও একপ্রস্থ আলোচনা হয়েছে।

বন্ধ করুন