বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাবার আদর্শটাই পরম্পরা, জবাব সন্তোষ মোহনের কন্যা কংগ্রেস ত্যাগী সুস্মিতার
গত ১৬ই অগস্ট তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন সুস্মিতা দেবের। উত্তরীয় পরিয়ে দেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য তৃণমূল)
গত ১৬ই অগস্ট তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন সুস্মিতা দেবের। উত্তরীয় পরিয়ে দেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য তৃণমূল)

বাবার আদর্শটাই পরম্পরা, জবাব সন্তোষ মোহনের কন্যা কংগ্রেস ত্যাগী সুস্মিতার

  • আমার বাবা প্রয়াত সন্তোষ মোহন দেব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ইতিবাচক আদর্শগত সম্পর্ক বজায় রাখতেন। জানিয়েছেন সুস্মিতা দেব।

অসমের শিলচরের তারাপুরের বাসিন্দা ছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রয়াত সন্তোষ মোহন দেব। আর সন্তোষ মোহন দেবের বাড়ি মানেই আদি কংগ্রেসী ঘরানার পীঠস্থান। গত প্রায় পাঁচ দশক ধরে এই বাড়িটিই ছিল বরাক উপত্যকায় কংগ্রসের ক্ষমতার ভরকেন্দ্র। সেই বাড়ির ছোট কন্যা তথা প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব বাড়ি ফিরলেন তৃণমূল পরিবারের সদস্যা হিসাবে। এনিয়ে নানা কথা উঠতে শুরু করেছে ইতিমধ্যেই। কংগ্রেস নেতা কমলাক্ষ দে পুরকায়স্থ  কিছুটা অসন্তোষ প্রকাশ করেই জানিয়েছেন,' সুস্মিতা দেব কংগ্রেস ছেড়ে দিয়ে তাঁর বাবার পরম্পরাকে নষ্ট করেছেন।' 

 

এদিকে বাড়িতে ঢোকার আগে যেন কংগ্রেস নেতৃত্বকেই পালটা জবাব দিলেন সুস্মিতা। তিনি বলেন, ‘বাবার আদর্শটাই একটি পরম্পরা। সেটা কোনও দলের বা ব্র্যান্ডের নয়। আমার বাবা প্রয়াত সন্তোষ মোহন দেব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ইতিবাচক আদর্শগত সম্পর্ক বজায় রাখতেন। আমরা একটি পরিবারের মতোই ছিলাম। আমি যদি সত্যিই ক্ষমতা চাইতাম তবে কয়েক বছর আগেই বিজেপিতে চলে যেতে পারতাম। এটা শুধু সুস্মিতা দেব বা তার কেরিয়ারের ব্যাপার নয়। আগামী দিন উত্তরপূর্বের রাজনীতিতে যে মোড় ঘুরতে চলেছে তারই দিক নির্দেশ করছে আমার সিদ্ধান্ত। মায়ের সঙ্গে আমি দেখা করেছি। তিনি এই সিদ্ধান্তে খুশি।’

 

তিনি জানিয়েছেন, ‘বিধানসভা নির্বাচনের পর তিনমাস একেবারে মানসিক অশান্তির মধ্যে কাটিয়েছি। তবে আগামী দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শিলচরে আসবেন। তাঁর ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাইডেন্সে উত্তরপূর্ব ভারতের রাজনৈতিক মোড় ঘোরানোর ব্যাপারে দীর্ঘকালীন পরিকল্পনা রয়েছে।’

 

বন্ধ করুন