বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‌করোনা সংকটের মধ্যেই ফের নয়া সংসদ ভবন নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে তোপ রাহুলের
রাহুল গান্ধী। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)
রাহুল গান্ধী। ফাইল ছবি : পিটিআই (PTI)

‌করোনা সংকটের মধ্যেই ফের নয়া সংসদ ভবন নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে তোপ রাহুলের

  • একই সুর শোনা গিয়েছে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়ানের মুখেও।তিনি জানান, কেন্দ্রের ভিসটা প্রকল্পের জন্য যে টাকা খরচ হচ্ছে, সেই টাকা ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজে ব্যবহার করা উচিত।

কেন্দ্রীয় সরকারের ভিসটা প্রজেক্ট এখন জরুরি নয়। তার থেকেও বেশি জরুরি কেন্দ্রের সঠিক দিশা দেখানো।মঙ্গলবার এই ভাষাতেই কেন্দ্রকে ফের নিশানা করলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। করোনার এই সংকটজনক পরিস্থিতিতে কোন বিষয়কে বেশি গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন, কোনটিকে নয়, সেই বিষয়েই কেন্দ্রকে সচেতন করেন তিনি।

নিজে করোনা আক্রান্ত হয়ে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ঠিকই।কিন্তু তাঁর প্রতিবাদের ভাষা কিন্তু থেমে থাকেনি।কোয়ারেন্টাইনে থেকেও কংগ্রেস নেতা টুইটে জানিয়েছেন, এখন কেন্দ্রীয় সরকারের ভিসটা প্রকল্প জরুরি নয়।এখন কেন্দ্রের উচিত সঠিক দিশা দেখানো।দেশে যেভাবে প্রতিদিন করোনা সংক্রমণের হার বাড়ছে, অক্সিজেনের সংকট দেখা দিয়েছে, হাসপাতালে বেড পাওয়া যাচ্ছে না, ভ্যাকসিনের জন্য মানুষ ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে আছে, সেখানে কেন্দ্রের উচিত করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা করা,এমনটাই অভিমত পোষণ করেছেন কংগ্রেস নেতা।

 

এর আগেও করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রের ভূমিকার ঘোর সমালোচনা করেছিলেন রাহুল।তিনি বিজেপিকে নিশানা করে জানিয়েছিলেন, বিজেপিকে গোটা সিস্টেমের শিকার হতে দেবেন না।দেশে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ভেঙে পড়া ও অক্সিজেন সংকটের জন্য কেন্দ্রকে কাঠগড়ায় তুলেছেন রাহুল।

শুধু রাহুলই নয়, একই সুর শোনা গিয়েছে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়ানের মুখেও।তিনি জানান, কেন্দ্রের ভিসটা প্রকল্পের জন্য যে টাকা খরচ হচ্ছে, সেই টাকা ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজে ব্যবহার করা উচিত।ওই টাকা দিয়ে আরো বেশি করে পিপিই কিট আমরা কিনতে পারতাম।সেগুলি পরিযায়ী শ্রমিকদের দেওয়া যেত।

উল্লেখ্য, দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের আগে কেন্দ্রীয় সরকার সেন্ট্রাল ভিসটা প্রজেক্ট হাতে নিয়েছে।এই প্রকল্পের মধ্যে নতুন সংসদ ভবন তৈরির কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া কমন সচিবাচলয় ও রাজভবন থেকে ইন্ডিয়া গেট পর্যন্ত নতুনভাবে সাজানোর প্রক্রিয়াও হাতে নেওয়া হয়েছে। দেশে করোনা সংকটকালে যখন প্রতিদিন মানুষের মৃত্যু হচ্ছে, সেখানে কেন্দ্রের এই প্রজেক্ট হাতে নেওয়া নিয়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে

বন্ধ করুন