বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > RPF: ধর্মের ভিত্তিতে শত্রুতা! ট্রেনে গুলি করে খুন, অভিযুক্ত আরপিএফের বিরুদ্ধে এবার কড়া ধারা

RPF: ধর্মের ভিত্তিতে শত্রুতা! ট্রেনে গুলি করে খুন, অভিযুক্ত আরপিএফের বিরুদ্ধে এবার কড়া ধারা

অভিযুক্ত আরপিএফ কনস্টেবল চেতন সিং (VIJAY BATE/HT PHOtO) (HT_PRINT)

চলন্ত ট্রেনে গুলি করে চারজনকে খুন করেছিলেন এক আরপিএফ কনস্টেবল। তার বিরুদ্ধে এবার কড়া ধারা আরোপ করা হল। 

আরপিএম কনস্টেবল চেতন সিং।মুম্বইতে চলন্ত ট্রেনের ভেতর গুলি চালিয়ে  তিন যাত্রী ও এক সিনিয়র অফিসারকে খুন করেছিলেন বলে অভিযোগ এদিকে সেই ঘটনায় সাম্প্রদায়িক কারণ থাকতে পারে বলে আগেই বিভিন্ন মহল থেকে দাবি করা হয়েছিল। তবে এবার আরপিএফ সেই ঘটনায় দুই সম্প্রদায়ের মধ্য়ে ধর্মের ভিত্তিতে পারস্পরিক শত্রুতা ছড়ানোর যে ধারা সেটা লাগু করল অভিযুক্তের বিরুদ্ধে।

তবে এনডিটিভির খবর অনুসারে জানা গিয়েছে, এর আগেই জিআরপি তাদের এফআইআরে চেতন সিংয়ের বিরুদ্ধে সেকশন ১৫৩ এ লাগু করেছিল। সেটা হল ধর্ম, জাতপাত, বাসস্থান, ভাষা সংক্রান্ত ব্যাপারে দুই সম্প্রদায়ের মধ্য়ে বিভেদ তৈরি করা।

এদিকে অভিযুক্তের হেফাজতের আবেদন করার সময় পুলিশ এই ধারা যুক্ত করার বিষয়টি আদালতে জানান। আদালত অভিযুক্তের ১১ অগস্ট পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।

সেই এফআইআরে আইপিসি ৩০২( খুন), অস্ত্র আইন ৩, ২৫, ২৭ ও রেলওয়ে অ্য়াক্ট লাগু করা হয়েছে।

 

কিন্তু কেন এই ধারা লাগু করা হল? আসলে এর আগে যাত্রীর তোলা একটা ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল। সেখানে অভিযুক্ত কনস্টেবল পাকিস্তানের প্রসঙ্গ উল্লেখ করেছিল। তবে সেই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা। সেই ভিডিয়োতে দেখা যায় অভিযুক্ত কনস্টেবল চেতন সিং একটি দেহের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন…সেই ভিডিয়োতে বলতে শোনা গিয়েছে, পাকিস্তান সে অপারেট হুয়ে হ্যায়, আউর মিডিয়া এহি কভারেজ দিখা রাহি হ্যায়, উনকো সব পাতা চল রহা হ্যায় ইয়ে কেয়া কর রহে হ্যায়, আগর ভোট দেনা হ্যায়, আগর হিন্দুস্তান মে রেহনা হ্যা তো ম্যায় ক্যাহতা হু মোদী আউর যোগী ইয়ে দো হ্যায়, আউর আপকে ঠাকরে…

এই ভিডিয়োকে কেন্দ্র করে মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বিজেপি সরকারকে একহাত নিয়েছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, এটা টেরর অ্য়াটাক। মুসলিমদের টার্গেট করছে। মুসলিম বিরোধী ঘৃণাসূচক বক্তব্যের এটা ফলাফল। ওই অভিযুক্ত আরপিএফ জওয়ান কি ভবিষ্যতেরর বিজেপি প্রার্থী? তার জামিনের জন্য কি সরকার চেষ্টা করবে? যখন তিনি মুক্তি পাবেন তখন কি মালা দিয়ে বরণ করা হবে? যদি এটা ভুল প্রমাণিত হয় তবে খুশি হব। লিখেছিলেন মিম প্রধান।

 

 

 

বন্ধ করুন