মঙ্গলবার বিকেলে বান্দ্রা স্টেশনে পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভ হঠাতে পুলিশের লাঠিচার্জ।
মঙ্গলবার বিকেলে বান্দ্রা স্টেশনে পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভ হঠাতে পুলিশের লাঠিচার্জ।

বান্দ্রা স্টেশনে পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভে পুলিশের লাঠি, উদ্ধবকে ফোন অমিতের

  • রেল পরিষেবা চালু করার দাবিতে মুম্বইয়ের বান্দ্রা ওয়েস্ট স্টেশনে উপস্থিত হন প্রায় ৩ হাজার ভিনরাজ্যের শ্রমিক। ভিড় সরাতে পুলিশ লাঠি চালায়। ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে ফোন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের।

লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর জেরে বাড়ি ফেরার জন্য ট্রেন চালু করার দাবি নিয়ে মুম্বইয়ের বান্দ্রা স্টেশনে বিক্ষোভ পরিযায়ী শ্রমিকদের। ভিড় সরাতে লাঠি চালাল পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় জাতির উদ্দেশে ভাষণে করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে ৩ মে পর্যন্ত ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার জেরে এ দিন বিকেলে বান্দ্রা ওয়েস্ট স্টেশনে প্রতিবাদ জানিয়ে উপস্থিত হন কয়েকশো ভিনরাজ্যের শ্রমিক। তাঁরা বাড়ি ফেরার জন্য অবিলম্বে রেল পরিষেবা চালুর দাবি জানাতে থাকেন।

বান্দ্রা স্টেশনের বাইরে উপস্থিত পশ্চিম রেলের আক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘শ্রমিকরা লকডাউনের মেয়াদবৃদ্ধির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছিলেন। তাঁদের দাবি, তাঁরা খাদ্য ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের অভাবে ভুগছেন।’

প্রতিবাদী শ্রমিকদের স্টেশনে ঢোকার মুখে বাধা দেয় পুলিশ। এরপর ভিড় হঠাতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে বলে জানা গিয়েছে। ওই রেল আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘স্টেশন চত্বর ছাড়তে প্রথমে শ্রমিকদের বোঝানোর চেষ্টা করে পুলিশ। কিন্তু তা না শোনায় শেষ পর্যন্ত তারা ভিড় সরাতে লাঠিচার্জ করে।’

ঘটনার জেরে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে ফোন করে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি বলেন, এই ধরনের ঘটনা করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে ভারতের লড়াই দুর্বল করে দেয়। এমন ঘটনা যাতে না ঘটে, সেই বিষয়ে রাজ্য প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই সঙ্গে রাজ্য সরকারের প্রতি তাঁর পূর্ণ সমর্থনও জানিয়েছেন শাহ।

ঘটনার জেরে মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরে টুইট করে লেখেন, ‘বান্দ্রা স্টেশনের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি অথবা সুরাতের বিক্ষোভও পরিযায়ী শ্রমিকদের তাঁদের রাজ্যে ফেরার ব্যবস্থা করায় কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতার ফল। ওঁরা খাদ্য বা আশ্রয় চান না, শুধু ঘরে ফিরতে চান।’


বন্ধ করুন