বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পদ্ম পাঁপড়ি ছিন্নভিন্ন করার ‘সুবর্ণ সুযোগ’, চার রাজ্যে আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেস
কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (Ishant Kumar)
কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (Ishant Kumar)

পদ্ম পাঁপড়ি ছিন্নভিন্ন করার ‘সুবর্ণ সুযোগ’, চার রাজ্যে আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেস

  • কংগ্রেস মুখপাত্র বলেন, ‘জনগণের কাছে বিজেপিকে হারানোর এটাই সুবর্ণ সুযোগ। বিজেপি এবং মুদ্রাস্ফীতি, উভয়কেই হারিয়ে দিন এই নির্বাচনে।'

আর একমাস পরই শুরু পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন। ভোটের দামামা ইতিমধ্যেই বেজে গিয়েছে। আর এরই মধ্যে বিজেপিকে হারানোর সুবর্ণ সুযোগ দেখতে পাচ্ছে কংগ্রেস। উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পঞ্জাব, মণিপুর এবং গোয়ার নির্বাচন নিয়ে আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেস। আসন্ন নির্বাচনে কংগ্রেসের সম্ভাবনা নিয়ে বলতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন দলের মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরযেওয়ালা। আর তাঁর গলায় শোনা গেল অন্তত চারটি রাজ্যে হাত শিবিরের জয়ের আত্মবিশ্বাস।

কংগ্রেস মুখপাত্র বলেন, ‘জনগণের কাছে বিজেপিকে হারানোর এটাই সুবর্ণ সুযোগ। বিজেপি এবং মুদ্রাস্ফীতি, উভয়কেই হারান। পেট্রল, ডিজেল, রান্নার গ্যাস, রান্নার তেল এবং ডালের দাম এই পাঁচ রাজ্য ও দেশের মানুষের জীবনযাত্রাকে কঠিন করে তুলেছে। উত্তরাখণ্ডের মতো অনেক রাজ্যে বেকারত্বের হার ৩০ থেকে ৪০ শতাংশে পৌঁছেছে। উত্তরপ্রদেশে কোটি কোটি যুবক বেকার।’

সুরজেওয়ালা বলেন, ‘পঞ্জাবে কংগ্রেসের সরকার ফিরবে বলে আমরা নিশ্চিত। দেবভূমি উত্তরাখণ্ডেও আমাদের সরকার হবে।’ গোয়া প্রসঙ্গে সুরজেওয়ালা বলেন, ‘জনতার রায় ও সংখ্যাগরিষ্ঠতাকে অপমান করে গতবার বিজেপি গোয়াতে সরকার গড়েছিল। তবে এবার সেই রাজ্যে মানুষ সব বিভেদ ভুলে কংগ্রেসকে জেতাতে এগিয়ে আসবেন।’

এদিকে উত্তরপ্রদেশ প্রসঙ্গে সুরজেওয়ালা বলেন, ‘রাজনৈতিক সত্য হল আমরা প্রায় তিন দশক ধরে উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতায় আসতে পারিনি এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বাঢরার নেতৃত্বে কংগ্রেসের সংগঠন তৃণমূল পর্যায়ে নতুন গতি ও শক্তি পেয়েছে। আমরা আমাদের মেয়ে, যুবক, কৃষকদের একটি অনন্য সম্মেলন নিয়ে এসেছি এবং অগ্রগতি ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের একটি নতুন এজেন্ডা নিয়ে এসেছি। আমরা যেভাবে জনগণের জন্য লড়াই করে এসেছি, তাতে আমরা সেখানে একটি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করব। উত্তরপ্রদেশকে এখন উত্তমপ্রদেশ হবে।’

বন্ধ করুন