বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ঠোঁট সেলাই করে বৃদ্ধকে রেললাইনে 'ফেলল' সৎ ছেলে‌, মদত ছিল মায়েরও
ঠোঁট সেলাই করে বৃদ্ধকে রেললাইনে 'ফেলল' সৎ ছেলে‌, মদত ছিল মায়েরও (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
ঠোঁট সেলাই করে বৃদ্ধকে রেললাইনে 'ফেলল' সৎ ছেলে‌, মদত ছিল মায়েরও (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

ঠোঁট সেলাই করে বৃদ্ধকে রেললাইনে 'ফেলল' সৎ ছেলে‌, মদত ছিল মায়েরও

ভোলারাম পুলিশকে জানান, দ্বিতীয় বিয়ে করার পর থেকেই অশান্তি শুরু হয়।  

হাত পা বাঁধা অবস্থায় রেল লাইনের উপর উপুড় হয়ে শুয়ে গোঙাচ্ছিলেন বৃদ্ধ। ‌সাত সকালে এই দৃশ্য দেখে চমকে উঠেছিলেন পথচারীরা। এখানেই শেষ নয়, বৃদ্ধের কাছে যেতেই শিউরে উঠেন তাঁরা। দেখেন, ওই বৃদ্ধের ঠোঁট দড়ি দিয়ে সেলাই করা হয়েছে। তৎক্ষণাৎ পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে আহত ওই বৃদ্ধকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এমনই ঘটনা ঘটেছে ঝাড়খণ্ডে। ‌মায়ের প্রশ্রয়ে সৎ বৃদ্ধ বাবার উপর অমানবিক নির্যাতন চালানোর অভিযোগ উঠল ছেলের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, মারধরের পর ঠোঁট সেলাই করে ওই বৃদ্ধকে রেললাইনে বেঁধে রেখে পালান তাঁর ছেলে।

সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের পালামু জেলার ভিটিহারা গ্রামে। ভোলা রাম নামে ৬৫ বছরের ওই বৃদ্ধের প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর ২০১০ সালে দ্বিতীয় বিয়ে করেন তিনি। অভিযুক্ত যুবক দ্বিতীয় স্ত্রীর আগের পক্ষের সন্তান।

ভোলা রাম পুলিশকে জানান, দ্বিতীয় বিয়ে করার পর থেকেই অশান্তি শুরু হয়। মঙ্গলবার রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ির বাইরে যান তিনি। ওই সময় সৎ ছেলে তাঁর দুই সঙ্গী নিয়ে তাকে মারধর করে বলে অভিযোগ। অভিযোগ, এরপর তিনজন মিলে বৃদ্ধের ঠৌঁট সেলাই করে পাশের রেল লাইনে বেঁধে রেখে পালিয়ে যায়। পরদিন সকালে গ্রামবাসীরা ভোলা রামকে রেললাইনের উপর পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে ভোলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করে। সেখানে তার ঠোঁটের সেলাই কাটা হয়। ভোলার অভিযোগ, স্ত্রীর প্রশ্রয়েই ছেলে তাঁকে প্রতিনিয়ত নির্যাতন করে আসছে।

বন্ধ করুন