বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Sonali Phogat Viral CCTV Footage: BJP নেত্রী সোনালির মৃত্যুতে গ্রেফতার আরও দুই, প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর CCTV ফুটেজ

Sonali Phogat Viral CCTV Footage: BJP নেত্রী সোনালির মৃত্যুতে গ্রেফতার আরও দুই, প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর CCTV ফুটেজ

প্রকাশ্যে সোনালির সিসিটিভি ফুটেজ।

প্রাথমিকভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নেত্রী সোনালি ফোগাটের মৃত্যুর কথা জানানো হয়েছিল। তবে পরিবারের তরফে এই মৃত্যুতে সন্দেহ প্রকাশ করার পরই তদন্তে নামে গোয়া পুলিশ।

সোনালি জোর করে মাদক সেবন করিয়ে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে বলে আগেই অভিযোগ উঠেছিল। এই আবহে প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর সিসিটিভি ফুটেজ। পুলিশ সেই সিসিটিভি ফুটেজগুলি খতিয়ে দেখেছে। সেই ভিডিয়োতে দেখা যায় বিজেপি নেত্রী তথা অভিনেত্রী টালমাটাল পায়ে হেঁটে যাচ্ছেন এক পুরুষের উপর ভর দিয়ে। এই আবহে যে রেস্তরাঁতে সোনালি পার্টি করছিলেন তার মালিক এবং মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নেত্রী সোনালি ফোগাটের মৃত্যুর কথা জানানো হয়েছিল। তবে পরিবারের তরফে এই মৃত্যুতে সন্দেহ প্রকাশ করার পরই তদন্তে নামে গোয়া পুলিশ। বিবৃতি দেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত স্বয়ং। এরপই একে একে বিস্ফোরক সব তথ্য প্রকাশ্যে আসতে থাকে। এই আবহে পুলিশের সন্দেহ, সোনালির খুনের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারেন ক্লাব মালিক এবং ধৃত মাদক ব্যবসায়ী।

জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে অঞ্জুনা সৈকতের কার্লি রেস্তরাঁ ও নাইটক্লাবে পার্টি করছিলেন তাঁর সহযোগীদের সঙ্গে। সেখানেই তাঁকে মাদক মেশানো পানীয় দেওয়া হয়। এই ঘটনায় সোনালির সহকারী সুধীর সাঙ্গওয়ান এবংক তার বন্ধু সুখবিন্দরকে আগেই গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। ভাইরাল সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, মাদক মেশানো পানীয় খাওয়ার পর সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারছেন না সোনালি। সেই অবস্থায় এক ব্যক্তি তাঁকে নিয়ে যাচ্ছে ধরে ধরে। পুলিশ জানিয়েছে, ভিডিয়োতে সেই ব্যক্তি আদতে সুধীর। খুন ও প্রমাণ লোপাটের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে সুধীরকে।

এদিকে পুলিশি জেরায় দুই অভিযুক্তই স্বীকার করে নিয়েছে যে, সোনালির পানীয়তে ১.৫ গ্রাম এমডিএমএ নামক একধরনের মাদক মিশিয়ে দিয়েছিল তারা। তবে ঠিক কী কারণে বছর ৪৩-র ওই বিজেপি নেত্রীকে খুন করা হল, সে বিষয়ে এখনও স্পষ্টভাবে কিছু জানা যায়নি। এদিকে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্টে ভোঁতা কোনও অস্ত্র দিয়ে আঘাতের কথা উল্লেখ করা থাকলেও, মৃত্যুর সঠিক কারণ এখনও জানা যায়নি। পুলিশ তদন্ত জারি রেখেছে। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও তথ্য জানার চেষ্টায় আছেন তদন্তকারীরা।

বন্ধ করুন