বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘‌মহিলাদের উপরে কেন বিজেপি অত্যাচার করবে?’‌, ছাত্রীর প্রশ্নে অস্বস্তিতে বিপ্লব
বিপ্লব দেব, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী  (Twitter/@BjpBiplab) (HT_PRINT)

‘‌মহিলাদের উপরে কেন বিজেপি অত্যাচার করবে?’‌, ছাত্রীর প্রশ্নে অস্বস্তিতে বিপ্লব

  • আগরতলার মহিলা কলেজে ছাত্রীদের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷ সেখানেই অপ্রিয় প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় তাঁকে৷ ছাত্রীর প্রশ্নে অস্বস্তিতে পড়ে গিয়ে অবশেষে তাঁর সঙ্গে সহমত পোষণ করলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী৷

তৃণমূল কংগ্রেস আগেই অভিযোগ তুলেছিল, বিপ্লব দেবের শাসনে ত্রিপুরায় আইনশৃঙ্খলা নেই। এবার কলেজ ছাত্রীদের মুখোমুখি আলোচনায় বসেছিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷ আর সেখানেই সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে অপ্রিয় প্রশ্ন করলেন এক ছাত্রী৷ নির্বাচনের আগে এবং পরে ত্রিপুরায় মহিলাদের উপর অত্যাচার করেছে বিজেপি৷ কিন্তু কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এই মন্তব্যে অস্বস্তিতে পড়েছেন বিপ্লব দেব।

ঠিক কী ঘটেছে ত্রিপুরায়?‌ শুক্রবার আগরতলার মহিলা কলেজে ছাত্রীদের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷ সেখানেই অপ্রিয় প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় তাঁকে৷ ছাত্রীর প্রশ্নে অস্বস্তিতে পড়ে গিয়ে অবশেষে তাঁর সঙ্গে সহমত পোষণ করলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী৷ সুতরাং তৃণমূল কংগ্রেসের তোলা অভিযোগ এখানে কার্যত সিলমোহর পেয়ে গেল।

ঠিক কী প্রশ্ন করেছেন ছাত্রী?‌ বিদিশা নামে ওই ছাত্রী প্রশ্নোত্তর পর্বের শেষ দিকে মাইক্রোফোন হাতে উঠে দাঁড়ান৷ আর বিপ্লব দেবকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘‌হয়তো আপনার শুনতে খুব খারাপ লাগবে, কিন্তু এটা খুব সিরিয়াস ইস্যু আছে৷’‌ বিপ্লব দেব বলেন, ‘‌না, না, আপনি বলুন৷’‌ তখন সেখানে ভর্তি লোকজনের সামনে ওই ছাত্রী বলেন, ‘নির্বাচনের সময় গণ্ডগোল হয়েছে। আর বিজেপির ছেলেরা বাড়িতে ঢুকে মেয়েদের উপরে অত্যাচার করেছে৷ কাউকে ছাড়েনি, আর এটা নিয়ে কোনও আন্দোলনও হয়নি৷ মহিলাদের উপরে কেন ওরা অত্যাচার করবে? কেন ওদের কিছু বলা যাবে না? কেন?’‌

মুখ্যমন্ত্রীর মুখের উপর সাহসের সঙ্গে এই প্রশ্ন করে এবং বক্তব্য রেখে ছাত্রী বিদিশা এখন ছাত্রীদের নেত্রী বনে গিয়েছেন। গত বছর নভেম্বর মাসে ত্রিপুরায় পুরসভার ভোট হয়৷ তখন এই অত্যাচার চলেছে বলে অভিযোগ করেন বিদিশা৷ বিদিশার এই বক্তব্য শুনে তাঁর সহপাঠীরাও হাততালি দেন৷ এই একই অভিযোগ তুলেছিল তৃণমূল কংগ্রেসও। আর এই প্রশ্ন ও বক্তব্য শুনে রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়ে যান ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব৷

বন্ধ করুন