বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড়, ৩১শে অগস্ট পর্যন্ত নাইট কার্ফু ত্রিপুরায়
বিধি মেনে খোলা যাবে শপিং মল (প্রতীকী ছবি)
বিধি মেনে খোলা যাবে শপিং মল (প্রতীকী ছবি)

বিশেষ ক্ষেত্রে ছাড়, ৩১শে অগস্ট পর্যন্ত নাইট কার্ফু ত্রিপুরায়

  • বিবাহ অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ ৫০জন ও শেষকৃত্যে ২০জন অংশ নিতে পারবেন।

সন্ধ্যা ৭টা থেকে ভোর ৫টা। ১লা অগস্ট থেকে ৩১শে অগস্ট পর্যন্ত গোটা রাজ্যে নাইট কার্ফুর লাগু করার কথা ঘোষণা করেছে ত্রিপুরা সরকার। পরিমার্জিত করোনা গাইডলাইনে উল্লেখ করা হয়েছে, সিনেমা হল, জিমনাসিয়াম. স্পোর্টস কমপ্লেক্স, বিনোদন পার্ক ৩০ শতাংশ লোকজনকে নিয়ে খোলা রাখা যেতে পারে। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত শপিং মল, সেলুন বিউটি পার্লার, রেস্তোরা কোভিড বিধি মেনে খোলা রাখা যেতে পারে। ধর্মীয় স্থানগুলিও খোলা রাখা যেতে পারে। বিবাহ অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ ৫০জন ও শেষকৃত্যে ২০জন অংশ নিতে পারবেন। সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি সংস্থায় ১০০ শতাংশ হাজিরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে পরিবহণের ভিড় এড়াতে হাজিরার সময়সীমার পরিবর্তন হতে পারে। 

এদিকে আগে রাজ্যের ১২টি এলাকায় পয়লা অগস্ট পর্যন্ত দিন ও রাতের কার্ফু করার কথা বলা হয়েছিল। এদিকে বর্তমানে রাজ্যের পরিসংখ্যান অনুসারে দেখা যাচ্ছে ৭৭ হাজার৭৮৮জন আক্রান্তের মধ্য়ে মৃত্যু হয়েছে ৭৫১জনের। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, গত এক সপ্তাহে ২ হাজার ৬৮৯জন কোভিড রোগীর সন্ধান মিলেছে। তার মধ্যে ১১জনের মৃত্যু হয়েছে। ত্রিপুরায় পজিটিভিটির হার প্রায় ৩.৫ শতাংশ। 

 

সন্ধ্যা ৭টা থেকে ভোর ৫টা। ১লা অগস্ট থেকে ৩১শে অগস্ট পর্যন্ত গোটা রাজ্যে নাইট কার্ফুর লাগু করার কথা ঘোষণা করেছে ত্রিপুরা সরকার। পরিমার্জিত করোনা গাইডলাইনে উল্লেখ করা হয়েছে, সিনেমা হল, জিমনাসিয়াম. স্পোর্টস কমপ্লেক্স, বিনোদন পার্ক ৩০ শতাংশ লোকজনকে নিয়ে খোলা রাখা যেতে পারে। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত শপিং মল, সেলুন বিউটি পার্লার, রেস্তোরা কোভিড বিধি মেনে খোলা রাখা যেতে পারে। ধর্মীয় স্থানগুলিও খোলা রাখা যেতে পারে। বিবাহ অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ ৫০জন ও শেষকৃত্যে ২০জন অংশ নিতে পারবেন। সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি সংস্থায় ১০০ শতাংশ হাজিরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে পরিবহণের ভিড় এড়াতে সময়সীমার পরিবর্তন হতে পারে। 

এদিকে আগে রাজ্যের ১২টি এলাকায় পয়লা অগস্ট পর্যন্ত দিন ও রাতের কার্ফু করার কথা বলা হয়েছিল। এদিকে বর্তমানে রাজ্যের পরিসংখ্যান অনুসারে দেখা যাচ্ছে ৭৭ হাজার৭৮৮জন আক্রান্তের মধ্য়ে মৃত্যু হয়েছে ৭৫১জনের। স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, গত এক সপ্তাহে ২ হাজার ৬৮৯জন কোভিড রোগীর সন্ধান মিলেছে। তার মধ্যে ১১জনের মৃত্যু হয়েছে। ত্রিপুরায় পজিটিভিটির হার প্রায় ৩.৫ শতাংশ। 

|#+|

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন