বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > MRP-র অজুহাতে লুঠ! তেলের দাম কমলেও ৬০-৭০ টাকা বেশি নিচ্ছেন বিক্রেতাদের একাংশ
ভারতে যে পরিমাণ ভোজ্য তেলের প্রয়োজন হয়, তার ৬০ শতাংশই আমদানি করা হয়। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে ব্লুমবার্গ) (Bloomberg)

MRP-র অজুহাতে লুঠ! তেলের দাম কমলেও ৬০-৭০ টাকা বেশি নিচ্ছেন বিক্রেতাদের একাংশ

ভোজ্যতেলের পাইকারি দাম কমেছে। তার সুফলও সাধারণ উপভোক্তাদের পাওয়া উচিত। কিন্তু, বাস্তবে MRP-র অজুহাতে যথেচ্ছ দাম চাইছেন বিক্রেতাদের একাংশ।

সোমবার তেল-তৈলবীজের বাজারে সর্ষে, বাদাম, সয়াবিন সিপিও, তুলা, পামোলিন ভোজ্য তেলের পাইকারি দাম কমেছে। সরকারের হস্তক্ষেপে ভোজ্যতেলের দাম নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা হচ্ছে। তা সত্ত্বেও খুচরো বাজারে দোকানদারদের একাংশ প্রতি লিটার ৩০-৪০ টাকা বেশি দামেই বিক্রি করছেন।

MRP-র অজুহাতে লুঠ

ভোজ্যতেলের পাইকারি দাম কমেছে। তার সুফলও সাধারণ উপভোক্তাদের পাওয়া উচিত। কিন্তু, বাস্তবে MRP-র অজুহাতে যথেচ্ছ দাম চাইছেন বিক্রেতাদের একাংশ।

বর্তমান মূল্য অনুসারে দিল্লিতে সরষের তেল প্রতি লিটার ১৫৪-১৬০ টাকায় পাওয়া উচিত। তবে গ্রাহকদের কাছে তা প্রায় ১৯০ টাকা লিটারে বিক্রি করা হচ্ছে।

একইভাবে, বাদাম তেলের জন্য গ্রাহকদের প্রতি লিটার প্রায় ৭০ টাকা, সূর্যমুখীতে ৪০ টাকা এবং অন্যান্য ভোজ্য তেলের জন্য ৩০-৩০ টাকা বেশি নেওয়া হচ্ছে।

কয়েক মাস আগেই সরকার তেল শিল্পের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসে। তাতে ভোজ্যতেলের সর্বোচ্চ খুচরো মূল্য (MRP) বেশি রাখার বিষয়ে কথা হয়। তবে, এখনও এমআরপি নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে।

বন্ধ করুন