বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > স্ত্রী'র অ্যাকাউন্টে ৩৯ লাখ টাকা জমা ব্যক্তির, ১১ টাকা রেখে প্রতিবেশীর সঙ্গে পালালেন মহিলা
প্রতীকী ছবি : ইনস্টাগ্রাম (Instagram )
প্রতীকী ছবি : ইনস্টাগ্রাম (Instagram )

স্ত্রী'র অ্যাকাউন্টে ৩৯ লাখ টাকা জমা ব্যক্তির, ১১ টাকা রেখে প্রতিবেশীর সঙ্গে পালালেন মহিলা

  • অবশ্য পুরো টাকা তোলেননি তিনি। অ্যাকাউন্টে এখনও ১১ টাকা পড়ে আছে।

পৈতৃক চাষের জমি। সেটা বেচে ৩৯ লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন এক ব্যক্তি। পুরো টাকাটাই জমা করে দেন স্ত্রী'র ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। আর তার কয়েকদিনেক মধ্যেই হাপিশ পুরো টাকা! উধাও তাঁর স্ত্রীও। টাকা তুলে নিয়ে প্রতিবেশী যুবকের সঙ্গে পলাতক ওই মহিলা। অবশ্য পুরো টাকা তোলেননি তিনি। অ্যাকাউন্টে এখনও ১১ টাকা পড়ে আছে। ঘটনাটি বিহারের।

প্রায় বছর ১৪ আগে কাউদিয়ার বাসিন্দা ব্রজকিশোর সিংয়ের সঙ্গে ভোজপুরের বিন্দ গ্রামের প্রভাবতীর বিয়ে হয়। তাঁদের একটি মেয়ে এবং একটি ছেলেও আছে। ব্রজকিশোরের নিজস্ব খামার ছিল। টুকটাক চাষাবাদ, পশুপালন করতেন। তবে সম্প্রতি তিনি অন্য পেশায় যোগ দেন। গুজরাতে কাজ করতে যান তিনি।

গুজরাত থেকেই স্ত্রীর অ্যাকাউন্টে বাড়ির খরচের টাকা পাঠাতেন তিনি। এরই মধ্যে পাড়ার এক যুবকের সঙ্গে প্রভাবতীর ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয়। সম্প্রতি বিহারে বাড়ি আসেন বজ্রকিশোর। চাষবাস ছেড়ে দিয়েছেন। জমি রেখে আর কী হবে! তাই জমি, খামার বেচে দেন তিনি। পান ৩৯ লক্ষ টাকা। পুরো টাকাটাই জমা দেন স্ত্রীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে।

এর পর গুজরাতে ফেরত যান তিনি। এর মধ্যেই হঠাত্ একদিন বেপাত্তা হয়ে যান প্রভাবতী। একই সময়ে নিখোঁজ হয়ে যান তাঁর প্রতিবেশী প্রেমিক। দেখা যায়, যাওয়ার আগে ব্যাঙ্ক থেকে নগদ ১৩ লক্ষ টাকা তুলে নিয়ে গেছেন প্রভাবতী। বাকি ২৬ লক্ষ টাকা ট্র্যান্সফার করা হয়েছে দেহরির এক ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে।

বজ্রকিশোর জানিয়েছেন, ওই টাকা দিয়ে গুজরাতে ফ্ল্যাট কিনবেন ভেবেছিলেন। ১৪ বছরের বিবাহিতা স্ত্রী যে এমন করবেন, তা আঁচও করতে পারেননি। এই সম্পর্কের বিষয়ে তিনি কিছুই জানতেন না বলে জানান। স্থানীয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। গোটা বিষয়টি এখন পুলিশের তদন্তাধীন।

বন্ধ করুন