বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > World Bank Report: পাকিস্তানে দারিদ্র্যসীমার নীচে নেমে যেতে পারেন এক কোটি মানুষ, শঙ্কায় বিশ্বব্যাঙ্ক

World Bank Report: পাকিস্তানে দারিদ্র্যসীমার নীচে নেমে যেতে পারেন এক কোটি মানুষ, শঙ্কায় বিশ্বব্যাঙ্ক

দারিদ্র্যসীমার নীচে নেমে যাবেন এক কোটি মানুষ (Pixabay)

World Bank Report: বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার ১.৮ শতাংশে স্থিতিশীল থাকবে, যেখানে দারিদ্র্যের হার প্রায় ৪০ শতাংশে থাকবে।

পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে। প্রায় ৯৮ মিলিয়ন পাকিস্তানি ইতিমধ্যে দারিদ্র্যের সাথে লড়াই করছে। ব্যাপক অর্থনৈতিক সংকটে থাকা এই দেশে আরও এক কোটিরও বেশি মানুষ তাই দারিদ্র্যসীমার নীচে চলে যেতে পারেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিশ্ব ব্যাঙ্ক। ১.৮ শতাংশের ধীর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার এবং ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির উপর ভিত্তি করে এই আশঙ্কা দেখিয়েছে বিশ্ব ব্যাঙ্ক। এছাড়াও পাকিস্তানের প্রবৃদ্ধির দৃষ্টিভঙ্গির অর্ধ-বার্ষিক প্রতিবেদনে এটি ইঙ্গিত দিয়েছে যে দেশটি প্রায় সমস্ত মূল অর্থনৈতিক লক্ষ্যমাত্রাই এখনও অর্জন করতে পারেনি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, পাকিস্তান তার প্রাথমিক বাজেটের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে পারছে না। টানা তিন বছর লোকসানে থাকতে পারে এই দেশ। এটা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের শর্তের পরিপন্থী। মুদ্রা তহবিল মূলত উদ্বৃত্তের শর্ত বজায় রেখেছে।

প্রতিবেদনের প্রধান লেখক সৈয়দ মুর্তজা মুজাফফারি এ প্রসঙ্গে বলেছেন, দারিদ্র্য দূরীকরণে যে প্রচেষ্টা চলছে তা যথেষ্ট নয়। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি সামান্য ১ দশমিক ৮ শতাংশে স্থিতিশীল থাকবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। একই সময়ে, প্রায় ৯.৮ কোটি পাকিস্তানি ইতিমধ্যেই দারিদ্র্যসীমার নীচে রয়েছে। এতে দারিদ্র্যের হার প্রায় ৪০ শতাংশে স্থির রয়েছে। প্রতিবেদনে দারিদ্র্যসীমার ঠিক উপরে বসবাসকারী মানুষের ঝুঁকির কথাই তুলে ধরা হয়েছে। এর আওতায় এক কোটি মানুষ দারিদ্র্যসীমার নীচে নেমে যাওয়ার ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন।

এরই মধ্যে কিছুটা আশার আলোও কিন্তু দেখিয়েছে বিশ্ব ব্যাঙ্ক। বিশ্ব ব্যাঙ্ক বলেছে, দরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কৃষি উৎপাদনে লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু এই লাভগুলি ক্রমাগত উচ্চ মূল্যস্ফীতি এবং নির্মাণ, বাণিজ্য এবং পরিবহনের মতো উচ্চ-কর্মসংস্থান খাতে সীমিত মজুরি বৃদ্ধির দ্বারা অফসেট করা হতে পারে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে দৈনিক মজুরি শ্রমিকদের মজুরি এই আর্থিক বছরের প্রথম প্রান্তিকে মাত্র পাঁচ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, যেখানে মূল্যস্ফীতি ৩০ শতাংশের উপরে ছিল।

  • শিশুরা স্কুলে যাওয়া মিস করতে পারে

উল্লেখ্য, বিশ্ব ব্যাঙ্ক আরও সতর্ক করেছে যে জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধির পাশাপাশি পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধির কারণে বিদ্যালয়ে উপস্থিত শিশুদের সংখ্যা কমতে পারে। এছাড়াও, এটি অসুস্থতার ক্ষেত্রে চিকিৎসায় বিলম্বের কারণও হতে পারে। যাঁরা কোনও ভাবে বেঁচে রয়েছেন। তাঁদের মাথায় মৃত্যুর হুমকি সবসময় থাকবে। এছাড়াও, এই প্রতিবেদনটি আরও বলেছে যে দেশের কিছু অংশে খাদ্য নিরাপত্তা উদ্বেগের বিষয়।

ঘরে বাইরে খবর

Latest News

ওডিআই বিশ্বকাপে পারফর্ম করেও ব্রাত্য! শ্রীলঙ্কা সিরিজে সুযোগ পেয়ে জবাব রাহুলের… গুরু পূর্ণিমায় বিরল যোগ! ৩ রাশির সামনে সুখের সময়, কমবে সাংসারিক জটিলতা দিদি মমতার ডাকে সাড়া দিয়ে আসছেন ভাই অখিলেশ, দেখা যাবে একুশের মঞ্চে রোহিত বা স্কাই কি আসছেন KKR-এ? DC ছাড়ছেন পন্ত? কোন দলে যাবেন? সামনে বড় তথ্য ‘‌আমাকে কি পেতে চাও?‌’‌ ভেসে উঠল ভিডিয়ো কলে নগ্ন ছবি, প্রতারণা চক্র ফাঁস পুলিশের কেন নিজের গড়ে পরাজয় হয়েছে? সোনিয়ার কাছে রিপোর্ট দিলেন অধীর, অমত শীর্ষ নেতারা পরকিয়ার জেরে গর্ভবতী, প্রসবের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সদ্যোজাতকে পুঁতে ফেললেন মা SA20-তে MI কেপটাউনের হয়ে খেলবেন বেন স্টোকস! কত টাকা পাবেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক? ‘আম্বানিদের সঙ্গে ১১বছর ছিলাম, অনন্তের জন্য নিবেদিত প্রাণ ছিল, আজ ওরই বিয়েতে…’ 'তাঁকে গুজরাট থেকে আনেন নন-বায়োলজিকাল PM', UPSC প্রধানের পদত্যাগে তোপ কংগ্রেসের

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.